বেয়াদব ও উশৃঙ্খলকারীদের সংগঠনে ঠাঁই হবে না -গনি

(Last Updated On: February 13, 2017)

বেয়াদব ও উশৃঙ্খলকারীদের সংগঠনে ঠাঁই হবে না – এম এ গনি সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি এক বিবৃতিতে বলেন , কোন বেয়াদব ও শৃঙ্খলাবিরোধীদের কোন জায়গা হবে না। ইউরোপ পার্লামেন্টের সামনে ২ ফেব্রয়ারি , ২০১৭ ইউরোপ আওয়ামী লীগের শান্তিপূর্ন সমাবেশকে অশান্ত ও বিশৃঙ্খল করার জন্য বেলজিয়াম এর বজলুর রশিদ বুলু , ইউরোপ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি বক্তব্য প্রদানে বাধা প্রদান করে। এছাড়া বিভিন্নসময় ইউরোপ এর শীর্ষ স্থানীয় নেতাদের গালি গালাজ , ৪ বছর ধরে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সম্মেলন না করা বিভিন্ন অপরাধে বজলুর রশিদ বুলুকে সকল কর্মকান্ড থেকে অব্যাহতি ও ৫ বছরের জন্য সাসপেন্ড করা হয়েছে।এই বিষয়ে বুলু সাংবাদিক সম্মেলন করে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর কথা উল্লেখ করে গঠনতন্ত্রের ৪৬ ধারার মেনে চলার কথা উল্লেখ করে,, যা আমার দৃষ্টি গোচর হয়। আমাদের নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে আমি বিশেষ ধন্যবাদ জানাই সঠিক কথা বলার জন্য। ৪৬ এর ধারা “সংগঠনের যে কোন শাখা তাহার যে কোন কর্মকর্তা বা সদস্যকে দলের স্বার্থ , আদর্শ , শৃঙ্খলা তথা গঠনতন্ত্র ও ঘোষণাপত্র পরিপন্থী কর্মকান্ডের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করিতে পারিবে “. যেহেতু বুলু প্রকাশ্যে (ভিডিও ক্লিপঃপ্রমান ) সাংগঠনিক স্বার্থ বিরোধী কাজ করেছে তাই ৪৬ ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

ইউরোপ এর বিভিন্ন দেশের নেতৃবৃন্দ বজলুর রশিদ বুলু এর সাসপেন্ড এর বিষয়ে স্বাগত জানিয়েছে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি এক বিবৃতিতে বলেন , কোন বেয়াদব ও শৃঙ্খলাবিরোধীদের কোন জায়গা হবে না। ইউরোপ পার্লামেন্টের সামনে ২ ফেব্রয়ারি , ২০১৭ ইউরোপ আওয়ামী লীগের শান্তিপূর্ন সমাবেশকে অশান্ত ও বিশৃঙ্খল করার জন্য বেলজিয়াম এর বজলুর রশিদ বুলু , ইউরোপ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি বক্তব্য প্রদানে বাধা প্রদান করে। এছাড়া বিভিন্নসময় ইউরোপ এর শীর্ষ স্থানীয় নেতাদের গালি গালাজ , ৪ বছর ধরে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সম্মেলন না করা বিভিন্ন অপরাধে বজলুর রশিদ বুলুকে সকল কর্মকান্ড থেকে অব্যাহতি ও ৫ বছরের জন্য সাসপেন্ড করা হয়েছে।

এই বিষয়ে বুলু সাংবাদিক সম্মেলন করে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর কথা উল্লেখ করে গঠনতন্ত্রের ৪৬ ধারার মেনে চলার কথা উল্লেখ করে,, যা আমার দৃষ্টি গোচর হয়। আমাদের নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে আমি বিশেষ ধন্যবাদ জানাই সঠিক কথা বলার জন্য। ৪৬ এর ধারা “সংগঠনের যে কোন শাখা তাহার যে কোন কর্মকর্তা বা সদস্যকে দলের স্বার্থ , আদর্শ , শৃঙ্খলা তথা গঠনতন্ত্র ও ঘোষণাপত্র পরিপন্থী কর্মকান্ডের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করিতে পারিবে “. যেহেতু বুলু প্রকাশ্যে (ভিডিও ক্লিপঃপ্রমান ) সাংগঠনিক স্বার্থ বিরোধী কাজ করেছে তাই ৪৬ ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ইউরোপ এর বিভিন্ন দেশের নেতৃবৃন্দ বজলুর রশিদ বুলু এর সাসপেন্ড এর বিষয়ে স্বাগত জানিয়েছে

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.