কুয়েতে লেখক ও প্রাবন্ধিক আজমকে সম্বর্ধনা

(Last Updated On: আগস্ট ৫, ২০১৭)
শেখ এহছান খোকনঃ  বৃহস্পতিবার কুয়েত সিটির রাজধানী হোটেলে বাংলাদেশ সাহিত্য অঙ্গন কুয়েতেরর উদ্যেগে বিশিষ্ট লেখক ও সাহিত্যিক মোঃ আলী আজমকে বিদায়ী সম্বর্ধনা উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় ।
এতে সভাপতিত্ব করেন রফিকুল ইসলাম ভুলু সভাপতি বাংলাদেশ সাহিত্য অঙ্গন কুয়েত ।
সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ আব্দুল আহাদ এর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়েজ উদ্দিন আহমেদ ।অনুষ্ঠানের মধ্য মণি আলী আজমের উপস্থিতিতে বিশেষ অতিথি দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কবি ও সিলেট লেখক ফোরাম এর সভাপতি আবদুল মালিক ,সংগঠক ও জাপা সভাপতি কুয়েত হাজী মাহমুদ আলী,সংগঠক ও কমিউনিটি নেতা ফয়েজ কামাল,বিশিষ্ট লেখক ও সংগঠক কবি আল আমিন চৌধুরী স্বপন,সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ছন্দ কবি আব্দুর রহিম,কবি স্বদেশ সম্পাদক মাসুদ করিম,মাসিক মদীনার পথে ম্যাগাজিন এর সম্পাদক শরিফ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান,সাহিত্য প্রেমী ও যমুনা টিভি কুয়েত প্রতিনিধি শেখ এহছানুল হক খোকন,সংগঠক ও আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কুয়েত কমান্ডের সভাপতি দিদারুল আলম দিদার,কবি আজাদ নূর,কবি মোঃ মিলন,কবি এ জেট মিঠু সহ অসংখ্য প্রবাসী সাহিত্য প্রেমী সূধীজন ।
এছাড়া সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ।প্রধান অতিথি ময়েজ উদ্দিন আহমেদ সহ বক্তারা লেখক আলী আজম  প্রবাসী মাটিতে কর্ম ব্যস্ততার মাঝেও সাহিত্য ভান্ডারকে তার লেখনির মাঝে কুয়েতে ও সবার কাছে তুলে ধরে যে অবদান রেখেছেন তা সত্যি ই প্রশংসিত পাশাপাশি কুয়েতের সর্ব জনে যে সহযোগীতা তার লেখনি দিয়ে তা কুয়েত প্রবাসী সাহিত্য সমাজ সহ সকলে শ্রদ্ধাভরে স্বরন রাখবে ।প্রবাসের মাটিতে দেশের কৃষ্টি ও সংস্কৃতিকে ৩৪ বছর যেখানেই সাহিত্য পত্রিকা বা অনুষ্ঠান তার সংশোধন করতে ( হউক বাংলা বা ইংরেজি বর্ণ মালায় )তার কাছেই বেশিরভাগ প্রবাসীরা ছুটে যেতেন,কমিউনিটিকে যা দিয়ে গেলেন তার বিভিন্ন ব্যাখ্যা তুলে ধরেন সকলে ।পরে বিশেষ সৃতি সম্মাননা স্বরূপ সংগঠনের পক্ষ থেকে গুনী সাহিত্যিককে  ক্রেষ্ট প্রদান করা হয় ।
প্রথমে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত শেষে বাংলাদেশ তথা সকল শহীদের প্রতি দাড়িয়ে সম্মান জানানো হয় এক মিনিট সব শেষে নৈশভোজের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয় ।
Print Friendly

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.