‘৬ নারীকে ধর্ষণ করে’ ভিডিও, ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

(Last Updated On: নভেম্বর ১২, ২০১৭)

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন হাওলাদারের (২২) বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজ শনিবার বিকেলে ভেদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মেহেদি হাসান মামলার বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, ওই ছাত্রনেতাকে ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। আজ জেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মহসিন মাদবর ও যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ উজ্জামানের সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সম্প্রতি আরিফ হোসেন হাওলাদারের বিরুদ্ধে ফাঁদে ফেলে ছয় নারীকে ধর্ষণ এবং এগুলোর ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

গ্রামবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ধর্ষণের শিকার নারীদের ছবি ও ভিডিও আপলোড করতে দেখা গেছে।

এ বিষয়ে শরীয়তপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মহসিন মাদবর বলেন, ‘আরিফ যে কাজ করেছে, তা কোনো মানুষ সমর্থন করতে পারে না। আমরা সবাই তাঁর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। সাংগঠনিকভাবে সর্বোচ্চ শাস্তিস্বরূপ তাঁকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।’

ভেদরগঞ্জ এম এ রেজা ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক মো. সায়েদুর রহমান বলেন, ওই মেয়েদের সঙ্গে এখনো অন্যায় আচরণ করা হচ্ছে। তাদের আপত্তিকর ছবি ও ভিডিওগুলো এখনো ফেসবুকে ছড়ানো হচ্ছে। পুলিশ কেন সাইবার আইন ও তথ্যপ্রযুক্তি আইন প্রয়োগ করছে না সে বিষয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। এর প্রয়োগ নিশ্চিত না করতে পারলে এভাবে সামাজিক অবক্ষয় হতেই থাকবে বলে মত দেন তিনি।

এদিকে, এখন পর্যন্ত আরিফ গ্রেপ্তার না হওয়ায় ভুক্তভোগী ওই নারীদের পরিবারসহ গ্রামবাসীরা আতঙ্কে রয়েছেন।

জানতে চাইলে ভেদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মেহেদী হাসান জানান, তাঁরা আরিফকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছেন। ক্ষতিগ্রস্ত এক নারী ধর্ষণের অভিযোগ করে আরিফ হাওলাদারের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন। যেসব ফেসবুক আইডি থেকে এসব ভিডিও আপলোড করা হয়েছে তাদের খুঁজে বের করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।ntv

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.