সিরাজদিখানে মাদক,সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশ ও র‌্যালী 

(Last Updated On: নভেম্বর ১২, ২০১৭)

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ “মাদক ও সন্ত্রাসকে না বলুন সুস্থ্য সুন্দর সমাজ গড়ুন”এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে হাজী মোঃ সোবাহানের আয়োজনে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নের গোয়াখোলা গ্রামে মাদক সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশ ও র‌্যালী হয়েছে। গতকাল শনিবার  বিকাল সাড়ে ৩টায় উপজেলার গোয়াখোলা গ্রামের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে গোয়াখোলা বাজারে এসে র‌্যালিটি শেষ হয়।

উক্ত মাদক বিরোধী সমাবেসে মোঃ হাবিবুর রহমানের সঞ্চালনা ও সামসুজ্জামান পনিরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাসাইল ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম যুবরাজ, বিশেষ অতিথী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাসাইল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জহরুল ইসলাম টিটু, সিরাজদিখান উপজেলা প্রেসক্লাবের সদস্য ও দৈনিক ভোরের পাতা প্রত্রিকার সিরাজদিখান প্রতিনিধি মোঃ মোস্তফা, ৩নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মোঃ আইয়ুব খান, সিরাজদিখান থানার এস আই আঃ আজিজ লস্কর, এস আই মোঃ আশাদ।

এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলার অন্যান্য ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য, মসজিদের ঈমাম, স্কুল শিক্ষক  সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও এলাকার সাধারণ জনগণ।

উপস্থিত বক্তাদের বক্তব্য সমাজকে বাচাতে হলে মাদক সন্ত্রাস এর বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে। বিশেষ অতিথী জহরুল ইসলাম টিটু বক্তব্যে বলেন, দুই চার জন মাদক ব্যাবসায়ীর জন্য সমাজ ধ্বংস হয়ে যাবে এটা আমরা মেনে নিতে পারিনা। প্রত্যেক মহল্লায় প্রতিবাদ গড়ে তুলুন এতে যত প্রকার সমস্যার সম্মূখিন হতে হয় এর মোকাবেলা করবো। এলাকার মাদক ব্যাবসায়ীদের তালিকা থানা পুলিশ ও আমাদের কাছে দিলে পুলিশ ও আমরা তাদের প্রতিহত করবো। সিরাজদিখান থানার এস আই মোঃ আশাদ তার বক্তব্যে বলেছেন, বর্তমান পুলিশ সুপার ও বর্তমান সিরাজদিখান থানার ওসি মাদকের বিষয় জিরো ট্রলারেন্স। বর্তমান বাংলাদেশ সরকার মাদক নিয়ন্ত্রনে যে অর্থ ব্যায় করছেন তা জরিপ করলে একটি ইউনিয়নে প্রতি বছর কমপক্ষে প্রায় এক কোট টাকা খরচ হয়। বাংলাদেশ সরকারের যদি এ টাকা মাদকের পিছনে খরচ না হতো তাহলে আরো উন্নয়ন করা সম্ভব হতো।

Print Friendly

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.