শরীয়তপুরে ৬ নারী ‘ধর্ষণ’: বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা আরিফ গ্রেপ্তার

(Last Updated On: ডিসেম্বর ২৬, ২০১৭)

প্রতারণা ও ভয়ভীতির মাধ্যমে ছয় নারীকে ধর্ষণ ও সেই ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে শরীয়তপুরের সেই আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা আরিফ হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। দেড় মাস পলাতক থাকার পর আজ মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪দিকে জেলার গোসাইরহাট উপজেলার সাইখা ব্রিজের ওপর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে গোসাইরহাট সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) থান্দার খায়রুল হাসান বলেন, মামলা হওয়ার পর আরিফ হোসেন পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। পুলিশের তিনটি টিম তাকে ধরার জন্য কাজ করেছে। অবশেষে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আরিফ হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

তিনি জানান, আরিফ এতদিন চাঁপুরের ফরিদগঞ্জ এলাকায় গা ঢাকা দিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন। আজ চাঁপুরের ফরিদগঞ্জ এলাকা থেকে শরীয়তপুর আসার পথে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে গোসাইরহাট উপজেলার সাইখা ব্রিজের ওপর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রসঙ্গত, গোপনে ছয় নারীর আপত্তিকর ছবি ভিডিও করে এবং ওই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে তাদের ধর্ষণ করে ভেদরগঞ্জ উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের (বহিষ্কৃত) এই সাধারণ সম্পাদক। একইসঙ্গে এই ধর্ষণের চিত্র গোপনে মোবাইলে ধারণ তিনি। এরপরে লোকলজ্জার ভয়ে ধর্ষিত নারীরা এসব কথা কাউকে না বললেও সম্প্রতি ওসব ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিওতে গৃহবধূ ও কলেজছাত্রীসহ ৬ নারীর সঙ্গে আরিফকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখা যায়।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.