কুমিল্লায় থানা থেকে মাদক বিক্রির অভিযোগে ৩ পুলিশ কর্মকর্তা ক্লোজড

(Last Updated On: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১৮)

কুমিল্লা কোতোয়ালী মডেল থানার মালখানা থেকে মাদক বিক্রির অভিযোগে তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে জেলা পুলিশ লাইনসে ক্লোজড করা হয়েছে। এছাড়া সালাহ উদ্দিন নামে থানার এক পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ-আল মামুন।সূত্র জানায়, কুমিল্লা কোতোয়ালী মডেল থানার মালখানা থেকে সালাহ উদ্দিন নামের এক পরিচ্ছন্নতাকর্মী সম্প্রতি মাদকদ্রব্য সরিয়ে অন্যত্র বিক্রি করছিল। বিষয়টি একটি সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়ে পড়ে। এরপর এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেলা পুলিশ প্রশাসনে তোলপাড় শুরু হয়। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে জেলা পুলিশের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল কোতোয়ালী মডেল থানায় যান এবং মালখানার মালামালের রেজিস্ট্রার খাতাসহ অন্যান্য বিষয় খতিয়ে দেখেন।

কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ-আল মামুন জানান, এ ঘটনায় থানার মালখানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসআই আহসান হাবিব, থানার অপারেশন অফিসার এসআই তপন বকশী ও কনস্টেবল তানভীরকে জেলা পুলিশ লাইন্সে ক্লোজড (সংযুক্ত) এবং পরিচ্ছন্নতাকর্মী সালাহ উদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এছাড়া বিষয়টি তদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আলমগীর হোসেনকে প্রধান করে ৩ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন- এএসপি মো. আমিরুল্লাহ ও কোর্ট ইন্সপেক্টর সুব্রত ব্যানার্জী।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.