কুমিল্লার সাকিব ইতালিতে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করেছে

(Last Updated On: মার্চ ৩১, ২০১৮)

● ইতালিতে ডাক্তার হয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করলেন বাংলাদেশি সাকিব আহাম্মেদ। পরিশ্রমই সফলতার চাবিকাঠি, ডাক্তার হয়ে তা প্রমাণ করে দেখালেন তিনি। তার এই সফলতায় বাংলাদেশিদের মাঝে ব্যাপক আলোচনা সৃষ্ঠি হয়েছে। পাশাপাশি দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করল বিদেশের মাটিতে। সাকিবের গ্রামের বাড়ি কুমিল্লায়।

প্রায় দীর্ঘ ৩৫ বছর বাংলাদেশিদের অভিবাসন ইতালিতে। এরপরও গড়ে ওঠেনি দ্বিতীয় প্রজন্মের কোনো ভাল অবস্থান। ফলে ডা. সাদিক নিজের মেধার গুনে একজন বাংলাদেশি অভিবাসী হিসেবে মানবসেবার মত এরকম একটি পেশায় উত্তীর্ণ হয়ে একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ইতালিতে।

ডা. সাকিব সফলতার বিষয়ে জানান, আজকের অবস্থানে আসার পেছনে বাবা-মায়ের অবদান আমার কাছে সবচেয়ে বেশি। বিশেষ করে পরিবারের সহযোগিতা থাকার কারণে আজ আমি ডা. সাকিব হতে পেরেছি। ইতালিতে ডাক্তার হতে পেরে একজন বাংলাদেশি হিসেবে গর্ববোধ করি। নিজের ক্যারিয়ার গঠন করতে পেরে সবার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

১৯৯২ সালে সাদিক কুমিল্লা জেলার তিতাস থানায় জন্মগ্রহণ করেন। মাত্র ৩ বছর বয়সে পরিবারের সঙ্গে ইতালিতে পাড়ি জমায়। ২০১২ সালে স্কুল ও কলেজের পড়াশোনা শেষ করে তরভেরগাতা ইউনিভার্সিটি অ্যান্ড মেডিসিন ও সার্জারি বিভাগে ভর্তি হন।

চলতি বছরে ২০১৮ কৃতিত্বের সঙ্গে তরভেরগাতা ইউনিভার্সিটি থেকে ডাক্তারি পাস করে আনুষ্ঠানিকভাবে সনদ গ্রহণ করেন। ইউনিভার্সিটির জেনারেল প্যাথলজি বিভাগের প্রধান জি প্রফেসর ডা. ভিটরিও মঞ্জারি এই কৃতিত্বের জন্য তার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করেন।

রোমের অদূরে ফ্রাসকাটি শহরে বসবাস করেন ডা. সাকিব। পিতা বশির আহমেদ একজন ব্যবসায়ী। মাতা জাহানারা আক্তার গৃহিনী। বোন পাপিয়া আক্তার আইন পেশায় রয়েছেন। সন্তানের ফলাফলে সন্তোষ প্রকাশ করে বাবা বলেন, সাদিকের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। এখন প্রত্যাশা ডা. সাদিক বাংলা কমিউনিটিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। আশা করি এই সাফল্য প্রজন্মের জন্য পথ প্রদর্শক হিসেবে কাজ করবে।

সূত্র- comilla barta

Print Friendly

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.