বাংলাদেশি হত্যার প্রতিবাদে ইতালির মিলানে বিক্ষোভ ও সমাবেশ

(Last Updated On: মে ৮, ২০১৮)

তুহিন মাহামুদ,মিলান, ইতালি, ইতালির মিলানে বাংলাদেশী যুবক শামসুল হক স্বপন কে নির্মমভাবে হত্যা করায় বাংলাদেশী কমিউনিটি মিলানের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা,ক্ষোভ,ঘৃনা ও বিচারের দাবীতে করা হয় বিক্ষভ মিছিল ও সমাবেশ।

পিয়াচ্ছা কায়াচ্ছো থেকে শুরু হয়ে বিক্ষোভ মিছিলটি মিলানোর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে মিলান সেন্ট্রাল ষ্টেশনে এক সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। এতে বাংলাদেশ কমিউনিটির নেত্রীবৃন্দ খুঁনিদের গ্রেফতার করায় ইতালিয়ান প্রশাসন কে ধন্যবাদ জানান এবং অবিলম্বে খুঁনিদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানিয়ে বক্তব্য রাখেন।   সামসুল হক স্বপন(২৩) গত ২৭ এপ্রিল দিবাগত রাত ২:৩০ মি. দিকে পিয়াচ্ছা কাইয়াচ্ছোতে দুই মরোক্কো ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে নির্মমভাবে নিহত হন।তিনি ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ থানার বারুয়াখালী গ্রামের আব্দুল সালামের বড় ছেলে। গত এক বছর যাবত তিঁনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। ইতালির মিলানে দীর্ঘ ৫বছর যাবত বসবাস করতেন তিনি।

এ ঘটনায় দু’জন কে ঘটনাস্থলেই গ্রেফতার করেছে ইতালিয়ান পুলিশ। বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে অংশ নিয়ে খুনিদের বিচারের দাবী জানান মিলানোস্থ বাংলাদেশী সামাজিক,রাজনৈতিক,সাংস্কৃতিক,সাংবাদিক এবং ইসলামিক সংগঠনের শীর্ষ স্থানীয় নেত্রীবৃন্দ। বক্তারা বলেন  বাংলাদেশীরা খেঁটে খাওয়া মানুষ আমরা  অনেকেই রাতে কাজ করে বাসায় ফিরি আমাদের স্বাভাবিক জীবন- যাপনের নিশ্চয়তা চাই।এভাবে আর যেনো কাউকে সন্ত্রাসীদের হাতে প্রাণ দিতে না হয়,সেই জন্য প্রশাসনকে আরো সজাগ থাকার আহবান জানান। এ ঘটনায় এখনও আতঙ্ক বিরাজ করছে  প্রবাসীদের মাঝে । এদিকে বাংলাদেশ কন্স্যুলেট জেনারেল মিলান স্বপনের লাশ দেশে প্রেরনের বিষয়ে ইতিমধ্যে উদ্যোগ গ্রহন করেছে বলে কন্স্যুলেট সূত্রে জানাগেছে। বাংলাদেশ কমিউনিটি মিলান-লোম্বার্দিয়ার-ইতালির এ আয়ো জনে বাংলাদেশী প্রবাসী ছাড়াও ইতালিয় বিভিন্ন সংগঠন ও গনমাধ্যম কর্মী ও কয়েকটি দেশের প্রবাসী সহ হাজার  হাজার জনতা অংশ গ্রহন করেন। শান্তি পূর্ণ এ বিক্ষোভ সমাবেশের মাধ্যমে সারা বিশ্বে বন্ধ হবে সন্ত্রাসীদের হিংস্র কালো থাকা এই প্রত্যাশা ইতালিতে বসবাসরত বাংলাদেশী প্রবাসীদের।

 

 

Print Friendly

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.