‘অপহৃত’ আওয়ামী লীগ নেতা পারভেজের ‘খোঁজ মিলেছে

(Last Updated On: আগস্ট ৮, ২০১৮)

মোহাম্মদপুর থানার ওসি জামাল উদ্দিন মীর শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টায়  বলেন, “৩০০ ফুট রাস্তায় তার সন্ধান পাওয়া গেছে। আমাদের টিম তাকে আনতে সেখানে গেছে। পারভেজ হোসেনের স্বজনরা গেছেন ওখানে।”

তবে কারা পারভেজকে তুলে নিয়ে গিয়েছিল, পূর্বাচলের কোথায় কীভাবে তাকে পাওয়া গেল- এসব প্রশ্নের কোনো উত্তর তাৎক্ষণিকভাবে মেলেনি।

কুমিল্লা জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পারভেজ হোসেন ২০১৪ সাল পর্যন্ত তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। দুই ছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে লালমাটিয়া সি ব্লকের ৩০ নম্বর বাড়িতে তিনি থাকতেন।

দুপুরে স্থানীয় একটি মসজিদে জুমার নামাজ পড়ে বাসার ফেরার সময় পারভেজকে জোর করে একটি কালো রঙের গাড়িতে তুলে নিয়ে যায় কয়েকজন।

পরিবারের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলের আশপাশের বাড়ির সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে তদন্তে নামে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার সে সময়  বলেছিলেন, যারা পারভেজকে তাকে তুলে নিয়ে গেছে তাদের কাছে ওয়্যারলেস ও অস্ত্র ছিল বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা পুলিশকে জানিয়েছেন। তবে তারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য কিনা- সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

আর পারভেজের মামা সাজ্জাদ হোসেন বলেছিলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-২ (হোমনা-তিতাস) আসনে দলের মনোনয়ন পাওয়ার আশায় কাজ করছিলেন তার ভাগ্নে। তিতাসের বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল শিকদারের সঙ্গে তার বিরোধ চলছিল।

এ কারণে পারভেজ বছরখানেক ধরে এলাকায় যাওয়া আসা কমিয়ে দিয়েছিলেন বলে জানান সাজ্জাদ।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম.

 

 

Print Friendly

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.