ফ্রান্সে স্কুলে নিষিদ্ধ হলো স্মার্টফোন

(Last Updated On: আগস্ট ১৩, ২০১৮)

ফ্রান্সের সরকার দেশটির স্কুলে শিক্ষার্থীদের স্মার্টফোন ব্যবহার বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ১৫ বছরের কম বয়সী শিক্ষার্থীরা তাদের সেলফোন বাড়িতে রেখে যাবেন বলে সোমবার সিদ্ধান্ত দিয়েছেন দেশটির নীতি নির্ধারকরা। অন্তত ক্লাসের দিনগুলোতে ফোন বন্ধ রাখতে হবে বলে জানানো হয়েছে।

দেশটির হাই স্কুলে ক্লাসের সময় স্মার্টফোন ব্যবহারে এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে কিনা সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে স্কুলগুলো।

শুধু স্মার্টফোন নয় এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকছে ট্যাবলেট, কম্পিউটার এবং অন্যান্য ইন্টারনেট সংযুক্ত ডিভাইস। শারীরিক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী, শেণিকক্ষে শিক্ষামূলক কার্যক্রম এবং সহ-শিক্ষা কার্যক্রমের ক্ষেত্রে ডিভাইস ব্যবহারে এই নিষেধাজ্ঞা থাকছে না বলেও জানানো হয়েছে।

স্কুলে স্মার্টফোন ব্যবহারে নিষেদ্ধাজ্ঞা আনতে প্রচারণার সময় এমন অঙ্গীকার করেছিলেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাক্রো। নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নের পর এক টুইট বার্তায় মাক্রো বলেন, ‘অঙ্গীকার রাখা হয়েছে।’

এর আগেও স্মার্টফোন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা এনেছে ফ্রান্স। ২০১০ সালে সব ধরনের ‘শিক্ষা কার্যক্রম চলাকালীন’ স্মার্টফোন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা আনে দেশটি।

চলতি বছরের শুরুতে গাড়িতে বসে এসএমএস পাঠানোর ব্যাপারেও নিষেধাজ্ঞা আনা হয়। এমনকি চালক যদি গাড়ি রাস্তার পাশেও নিয়ে যান তারপরও তার ওপর এই নিষেধাজ্ঞা রাখা হয়েছে।

২০১৭ সালের ডিসেম্বরে ফরাসি সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়, এই নিষেধাজ্ঞা হলো ‘জনগণকে স্বাস্থ্য বার্তা’ দেওয়ার একটি প্রচেষ্টা। আর তারা বিশ্বাস করেন শিশুদের তাদের ডিভাইসে বেশি সময় দেওয়া উচিত নয়।

সূত্র: দ্য ভার্জ/ কালের কন্ঠ।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.