ছেলেকে যৌনকর্মী হিসেবে বিক্রি! মায়ের ১২ বছরের কারাদণ্ড

(Last Updated On: আগস্ট ৭, ২০১৮)

নয় বছরের ছেলেকে অনলাইনের ডার্ক ওয়েবে যৌন নির্যাতনকারীদের কাছে বিক্রির অভিযোগে জার্মানির এক নারীকে সাড়ে ১২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

সোমবার ফ্রাইবুর্গ আদালত ওই নারীর সঙ্গীকেও ১২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।

গত জুনে এ মামলার বিচার শুরু হয়। যৌন কর্মের জন্য শিশুটিকে শুধু ‘ডার্ক নেটে’ বিক্রি করাই নয় বরং ৪৮ বছরের ওই নারী বেরিন টি. ও তার ৩৯ বছরের পুরুষবন্ধু ক্রিশ্চিয়ান এল.গত অন্তত দুই বছর ধরে নিজেরাও শিশুটিকে যৌন নিপীড়ন করেছে।

আদালত এ জুটিকে ধর্ষণ, শিশু যৌন নিপীড়ন,যৌন কর্মে বাধ্য করা এবং শিশু পর্ণগ্রাফি ডার্ক নেটে ছড়ানোর অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করেছে।

ফ্রাইবুর্গ শহরের কাছে সটাউফেন নামক জায়গায় এক যৌন নির্যাতন চক্রের হোতা ছিল তারা। দুই বছর ধরে এ কাজ করে তারা হাজার-হাজার ইউরো আয় করেছে।

আদালত একই মামলায় স্পেনের এক নাগরিককে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে। ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে শিশুটিকে কয়েকবার ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়ন চালানোর অভিযোগ আনা হয়েছে এবং আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে।

এ ঘটনায় জড়িত আরো পাঁচ জনের বিচার চলছে। ছেলেটি বর্তমানে তার পালক বাবা-মায়ের তত্ত্বাবধানে আছে।

Print Friendly

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.