‘বিশ্ব বলছে ২০ বছর পরে ২৩ তম অর্থনীতির দেশ হবে বাংলাদেশ’

(Last Updated On: আগস্ট ১৩, ২০১৮)

জাতির পিতা বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ হতো প্রাচ্যের সুইজারল্যান্ড। কেউ যদি দেশকে ধ্বংস করে থাকেন, সেটা করেছে জিয়াউর রহমান। রোববার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে অর্থনীতি সমিতির এক সেমিনারে এ মন্তব্য করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

দেশকে নিয়ে আবারো ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে উল্লেখ করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, এসব ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে এগিয়ে যাওয়ার জন্য শেখ হাসিনার হাতকে সুসংহত করতে হবে। সেমিনারে “বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশের অর্থনীতি ও সমাজ কতদূর যেতো?”

শিরোনামে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অর্থনীতি সমিতির সভাপতি ড. আবুল বারকাত। বাংলাদেশের অর্থনীতি ও উন্নয়নে বঙ্গবন্ধুর অবদান নিয়ে আলোচনা করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. ফরাস উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন ইউজিসি’র সাবেক চেয়ারম্যান ড. এ.কে. আজাদ চৌধুরী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি আ.আ.ম.স আরেফিন সিদ্দিক।
এ সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. ফরাস উদ্দিন বলেন, ‘এমন কোন অর্থনীতিবিদ নাই যারা বাংলাদেশকে ধন্য ধন্য দিচ্ছে না। কিসিঞ্জার দুই বছর আগে বলেছিলেন আমি অনেক রাজা মহারাজার সঙ্গে সাক্ষাৎ পায় কিন্তু একজন জাতির পিতার সাক্ষাৎ পেয়েছি। দুইজন ব্রিটিশ অর্থনীতিবিদ বলেছিলেন বাংলাদেশ যদি টিকে থাকে তবে তা হবে বিস্ময়। ২০০৮ সালে তারা থুক্কু দিয়ে বলেছে অসাধারণ। ২০১২ সালে ইকোনমিস্ট বলেছে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে। গত ১ বছরে ৫টি উন্নয়ন সহকর্মী ৪০ বিলিয়ন ডলারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। জেনে রাখেন সমাজতন্ত্রের গলা কাটছে গর্ভাচেভ এবং বরিস ইয়েতসিন। চীন আদর্শে ঠিক আছে। কিন্তু কি হয়েছে অর্থনীতিটা বাজার ভিত্তিক হয়ে গেছে। তারপরেই চীনের অর্থনীতিতে কিন্তু আগুন লেগেছে। কিন্তু যে কথাটা আমি সব সময় বলি বাংলাদেশে  বঙ্গবন্ধুর যে সমাজতন্ত্র তা তিন কিসিমের । রাষ্ট্রীয় ব্যক্তিগত এবং সমবায়। আমার খুব আফসোস বর্তমান সরকার সমবায় সম্পর্কে কিছু করেনি। তবে রাশিয়া চীনের সমাজতন্ত্রের চেয়ে অনেক ভিন্ন বাংলাদেশি সমাজতন্ত্র। শেখ মুজিবের সমাজতন্ত্র। এটা এখন অনেকটা আছে। পুরো বিশ্ব বলছে আজ থেকে ২০ বছর পরে ২৩তম অর্থনীতির দেশ হবে বাংলাদেশ’

http://www.somoynews.tv

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.