১৭ গোলে পাকিস্থানকে হারিয়েছে বাংলাদেশ

(Last Updated On: অক্টোবর ২৭, ২০১৮)

(Last Updated On: সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৮)

গ্রুপ পর্ব থেকে আগেই অনেক ছিটকে গেছে পাকিস্তান। নেপাল তাদের জালে বল পাঠিয়েছে ১২ বার। তিন বছর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আসা দুর্বল পাকিস্তানের জালে গোলবন্যা বইয়ে দিবে এমনটাই অনুমিতই ছিল। গুনে গুনে ১৭ বার পাকিস্তানের জালে বল জড়িয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

এ জয়ে ভুটানে অনুষ্ঠিত সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবলের বি গ্রুপ পর্ব থেকে সেমি ফাইনাল নিশ্চিত করে ফেলেছে মারিয়া-স্বপ্নারা। চাংলিমিথান স্টেডিয়ামে আজ সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হয় বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের এই ম্যাচ।

লাল-সবুজদের হয়ে গোল পেয়েছেন হ্যাটট্রিক সহ একাই সাত গোল দিয়েছেন স্বপ্না, চার গোল মার্জিয়ার, দুটি করে শিউলি আজিম ও মিশারাত জাহান। একটি করে শ্রীমতি কৃষ্ণারানী সরকার, তহুরা খাতুন ও আঁখি খাতুনের।

এমনিতেই মহিলা ফুটবলে তেমন ভালো ছিল না পাকিস্তান। এর সাথে ফিফার তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা যোগ হওয়ায় আরো পিছিয়েছে তাদের নারী ফুটবলের মান। গত মাসেই এই ভুটানের মাটিতে অনূর্ধ্ব-১৫ মহিলা সাফে তারা গ্রুপের দুই ম্যাচের প্রতিটিতে হেরেছিল। বাংলাদেশ তাদের উড়িয়ে দিয়েছিল ১৪-০ গোলে। এরপর নেপালের কাছে ৪ গোলের হার। সেই বাংলাদেশ দলের ১৩ ফুটবলার আছেন এবারের অনূর্ধ্ব-১৮ দলে। সাথে যোগ হয়েছেন গত বছর এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ আসরের চূড়ান্ত পর্বে খেলা ১০ খেলোয়াড়। এদের সমন্বয়ে আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশাল জয়ই পাওয়ার কথা মৌসুমীদের।

সেই দাবি পূরণ করলো বাঘিনীরা। ৭ মিনিটে মার্জিয়ার গোলে সূত্রপাত। সেখান থেকে শুরু গোলের যাত্রা। প্রথমার্ধে ৮ গোলে এগিয়ে থেকে ৯০ মিনিটে স্বপ্নার গোল পর্যন্ত মোট ১৭ বার বল জালে জড়িয়েছে কিশোরিরা। আক্রমনের পর আক্রমন করে গেছে তারা। হ্যাটট্রিক হয়েছে দুটি। স্বপ্না এই সাতগোল। মার্জিয়া চার।

২ অক্টোবর নেপালের সঙ্গে গ্রুপের পরের ম্যাচটি খেলবে বাংলাদেশ। একই ভেন্যুতে। সন্ধ্যা সাতটায় (বাংলাদেশ সময়)। এ ম্যাচে ড্র করলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন নিশ্চিত বাংলাদেশের। পাবে তুলনালমূলক দুর্বল দল। সম্ভাব্য ভুটান কিংবা ভারতকেই পেতে পারে গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা।

সারাবাংলা

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.