রুশ সুন্দরীর প্রেমে সিংহাসন ছাড়লেন মালয়েশিয়ার রাজা

(Last Updated On: জানুয়ারি ৯, ২০১৯)

বাংলাদেশ প্রতিদিনঃ  ব্রিটেনের রাজা অষ্টম এডওয়ার্ড মার্কিন কন্যা ওয়ালিস সিম্পসনের প্রেমে পড়ে সিংহাসন ত্যাগ করেন। ১৯৩৭ সালের সেই ঘটনার ৮০ বছর পর আবারও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি করলেন মালয়েশিয়ার রাজা পঞ্চম সুলতান মুহাম্মদ। গত বছর ২২ নভেম্বর মস্কোতে রুশ সুন্দরী ওকসানা ভোয়েভোদিনাকে ভালোবেসে বিয়ে করেন তিনি। আর এ ঘটনা জনসম্মুখে আসার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি রাজসিংহাসনও ত্যাগ করেছেন ইতিমধ্যে…

মালয়েশিয়ার রাজা ৫ম সুলতান মুহাম্মদ

সাংবিধানিক রাজতান্ত্রিক দেশ হিসেবে মালয়েশিয়ায় প্রাচীন ঐতিহ্যের ভিত্তিতে রাষ্ট্রীয় অভিভাবক হিসেবে রাজা থাকেন। বর্তমান রাজার নাম পঞ্চম সুলতান মুহাম্মদ। ২০১০ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর, বর্তমান রাজার পিতা সুলতান ইসমাইল পেত্রার অসুস্থতাজনিত কারণে তার পরিবর্তে মুহাম্মদ পঞ্চম কেলানটানের সুলতান হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। পরবর্তীতে ২০১৬ সালের ১৩ ডিসেম্বর তিনি মালয়েশিয়ার রাজা হিসেবে অধিষ্ঠিত হন। তিনি কেলানটানের ইসতানা বাতুতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পুরো নাম টেংকু মুহাম্মদ ফারিস পেত্রা। তিনি কুয়ালালামপুরের এলিস স্মিথ বিদ্যালয়ে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীর পর মার্কিন যুক্তরাজ্যের সেন্ট ক্রস কলেজ অক্সফোর্ডে পড়াশোনা করেন। ১৯৯১ সালে এখানকার ইসলাম শিক্ষা সেন্টার থেকে কূটনীতি নিয়ে স্নাতক সম্পন্ন করেন তিনি। এ ছাড়াও জানা যায়, বিভিন্ন সময় তিনি লন্ডন, কানাডা, জার্মানির বার্লিনসহ ইউরোপীয়ান বিজনেস স্কুলেও শিক্ষা গ্রহণ করেছেন। বর্তমানে ৪৯ বছর বয়সী মুহাম্মদ মালয়েশিয়ার ১৫তম রাজা হন ৪৭ বছর বয়সে। এ হিসেবে তিনি মালয়েশিয়ার সর্বকনিষ্ঠ রাজা। এর আগে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন প্রদেশের মালায় শাসকদের ২৪৩তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে দেশটির সর্বোচ্চ সম্মানিত ও ক্ষমতাধর রাষ্ট্রীয় পদ রাজা নির্বাচিত হন পঞ্চম মুহাম্মদ। ১৯৫৭ সালে ব্রিটিশের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর মালায় শাসকদের মধ্য থেকে মনোনীত একজন দেশের রাজার দায়িত্ব পালন করে আসছেন। সংসদীয় গণতন্ত্রের দেশ মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর, পুত্রজায়া, লাবুয়ান এ তিনটি ফেডারেল টেরিটোরি ছাড়া দেশটির তেরোটি প্রদেশের মধ্যে নয়টি মালায় শাসক দ্বারা পরিচালিত। এর প্রতিটি রাজ্যে নির্বাচিত আলাদা সরকার থাকলেও রাজ্যের সর্বোচ্চ সম্মানিত ও ক্ষমতাবান ব্যক্তি হলেন ‘সুলতান’। সম্প্রতি মালয়েশিয়ার রাজা পঞ্চম সুলতান মুহাম্মদ নিজের পদ থেকে  স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়িয়েছেন।

 

কে এই রাশিয়ান সুন্দরী

ওকসানা ভোয়েভোদিনা একজন রুশ মডেল। তিনি রিহানা অক্সানা নামেও পরিচিত। ১৯৯৩ সালে তিনি মস্কোতে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা ডাক্তার এন্ড্রে গর্বাতেনকো একজন অর্থোপেডিক সার্জন এবং মা একজন সাবেক মডেল। মস্কোতেই বেড়ে উঠা এই সুন্দরী প্লিকানভ রাশিয়ান ইকোনমিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইকোনমিক্সে স্নাতক সম্পন্ন করেন। গোটা বিশ্বেই তিনি এখন ব্যাপকভাবে আলোচিত হয়েছেন মালয়েশিয়ার রাজা পঞ্চম সুলতান মুহাম্মদকে বিয়ের করার মধ্য দিয়ে। যদিও এই যুগলের বয়সের ব্যবধান ২৪ বছর। বিয়ে করার আগে তিনি ধর্মান্তরিত হয়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। ছোটবেলা থেকেই ভীষণ ডানপিটে ছিলেন এই রাশিয়ান মডেল। মেয়েদের পুতুল খেলা বাদ দিয়ে ছেলেদের সঙ্গে বাইক রেসিংয়ের প্রতিযোগিতাগুলোতে নিয়মিত অংশ নিতেন তিনি। বিয়ের আগে তিনি বলেন, একজন ছেলে অবশ্যই ঘরের প্রধান ব্যক্তি এবং তাকে ঘরের মহিলার থেকে বেশি উপার্যনক্ষম হতে হবে।

প্রথম দেখায়ই ভালোবেসে ফেলেন রাজা

ইউরোপে প্রথম দেখা

বিয়ের বছরদেড়েক আগে ওকসানার সঙ্গে ইউরোপে রাজার পরিচয় হয়। প্রথম দেখায়ই ভালোবেসে ফেলেন রাজা পঞ্চম সুলতান মুহাম্মদ। মিস মস্কো-২০১৫ হওয়ার পর বিশ্বের নানা প্রান্তে ঘরে বেড়াতে হয়েছে ওকসানকে।

ইউরোপে এলিট ঘড়ির মডেলিংয়ের সময় রাজা পঞ্চম সুলতান মুহাম্মদের সঙ্গে প্রথম দেখা হয়। এরপরই দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে বলে জানা যায় বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী। গত বছরের ২২ নভেম্বর মস্কোতে এই প্রেম সফল পরিণতি লাভ করে বিয়ের মধ্য দিয়ে। বিয়ের অনুষ্ঠানে ছিল না কোনো অ্যালকোহলের আয়োজন। রাজা পরেছিলেন মালয়েশিয়ার জাতীয় পোশাক আর ওকসানা পরেন সাদা গাউন।

 

মিস মস্কো ২০১৫ ভোয়েভোদিনা

রাশিয়ার সেরা সুন্দরী

রাশিয়ার অন্যতম সেরা সুন্দরী ওকসানা ভোয়েভোদিনা। এই নারী ২০১৫ সালে অংশ নিয়েছিলেন সুন্দরী প্রতিযোগিতায়। সেখানে মিস মস্কো-২০১৫ এর বিজয়ী হয়েছিলেন তিনি। এরপরই শুরু করেন মডেলিং ক্যারিয়ার। বিশ্বজুড়ে নানা প্রান্তে মডেলিংয়ে কাজ করেছেন তিনি। তবে এই পেশায় আসার পেছনে তার মার অবদান রয়েছে। তার মা ১৯৯০ সালে এক স্থানীয় সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন। স্কুলে পড়ার সময় সহপাঠীদের থেকে অনেক বেশি লম্বা আর পাতলা গড়নের ছিলেন তিনি। তাই এই নিয়ে বেশ চিন্তিতও ছিলেন। কিন্তু ইউনিভার্সিটিতে পড়ার সময় তিনি অনুধাবন করেন লম্বা হওয়াটাই তার স্ট্রং সাইড এবং তিনি নিজেকে প্রমাণ করেছেন সেরা সুন্দরী হওয়ার মাধ্যমে।

 

 

প্রেম অতঃপর গোপনে বিয়ে

আকস্মিকভাবেই গত রবিবার সিংহাসন ছাড়ার ঘোষণা দেন মালয়েশিয়ার পঞ্চম রাজা সুলতান মুহাম্মদ। পাঁচ বছরের মেয়াদ পূর্ণ করার আগে পদত্যাগ করা তিনিই প্রথম মালয়েশীয় রাজা। তার সিংহাসন ছাড়ার কারণস্বরূপ মালয়েশিয়ার রাজকীয় কর্মকর্তারা জানান, মালয়েশিয়ার রাজা সুলতান মুহাম্মদ রাশিয়ার সাবেক বিউটি কুইন ওকসানা  ভোয়েভোদিনাকে বিয়ে করার কারণে সিংহাসন ছেড়ে দিয়েছেন। এ ছাড়া রাশিয়ার স্পুটনিকসহ বিশ্বের বহু গণমাধ্যম এ খবর দিয়েছে। গত বছরের শেষদিকে ওকসানা ইসলাম ধর্মগ্রহণ করার পর মালয়েশিয়ার সুলতানের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন ওকসানা ভোয়েভোদিনা।

প্রেমের কারণে রাজসিংহাসন ত্যাগের এই ঘটনা পুরো বিশ্বে ব্যাপকভাবে আলোচিত। ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যায় পৃথিবীতে এমন ঘটনা আগেও ঘটেছে। যা লাইলি-মজনু, শিরি-ফরহাদ, রোমিও-জুলিয়েট প্রভৃতি কালজয়ী প্রেমের কাহিনীকেও হার মানায়। বাস্তবে ঘটা এমন আরও একটি উদাহরণ হলো ব্রিটেনের রাজা অষ্টম অ্যাডওয়ার্ড। মাত্র ৩২৬ দিনের মাথায় সিংহাসন ত্যাগ করে ব্রিটিশ কমনওয়েলথের ইতিহাসে সবচেয়ে কম সময়ের রাজার তালিকায় অষ্টম অ্যাডওয়ার্ড নিজের নাম লেখান। প্রেমকে জিতিয়ে সারা পৃথিবীর প্রেমের ইতিহাসে অনন্য নজির স্থাপন করে ১৯৩৭ সালের ৩ জুন অ্যাডওয়ার্ড ওয়ালিস সিম্পসনকে বিয়ে করেন এবং প্যারিসে বসবাস শুরু করেন। ঐতিহাসিক এই  প্রেমকাহিনী নিয়ে ২০০৫-এ ইংল্যান্ডে একটি রোমান্টিক চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হয়। ছবিটির নাম ‘ওয়ালিস এবং অ্যাডওয়ার্ড’। ভবিষ্যতে মালয়েশিয়ার রাজা সুলতান মুহাম্মদ রাশিয়ার সাবেক বিউটি কুইন ওকসানা ভোয়েভোদিনাকে নিয়েও চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হলে অবাক হওয়ার কিছুই নেই। বিয়ের আগে চুটিয়ে প্রেম করেছেন এই সময়ের আলোচিত এই জুটি। দুজনের বয়সের পার্থক্য ২৪ বছর হলেও তাদের ভালোবাসায় ছিল না কোনো পার্থক্য। গত বছর ২২ নভেম্বর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন প্রেমিকযুগল। রাশিয়ায় বিশ্বের সব গণমাধ্যমের অগোচরে এই বিয়ে সম্পন্ন হয়। সম্প্রতি এ ঘটনা প্রকাশ হয়ে পড়লে সিংহাসনের বিষয়টি নিয়ে শুধু জল্পনা-কল্পনা থাকলেও তা এখন সত্যি সত্যি প্রমাণিত হলো। গত রবিবার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তিনি। আর তা গৃহীতও হয়েছে। তবে শাসক পরিষদ নতুন কাউকে রাজা হিসেবে নির্বাচিত করা পর্যন্ত সুলতান মুহাম্মদ ভারপ্রাপ্ত রাজা হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারেন। বর্তমানে স্ত্রীকে নিয়ে সন্তান গ্রহণের জন্য চিকিৎসা ছুটিতে জার্মানি গিয়েছেন রাজা।  আনুষ্ঠানিকভাবে অন্য শাসকদের নিজের সিদ্ধান্তে অটল থাকার কথা জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

 

প্রথম বিয়ে ২০০৪ সালে

বিবাহবিচ্ছেদ ২০০৮ সালে

রাজা পঞ্চম সুলতান মুহাম্মদ রুশ সুন্দরীকে বিয়ে করার আগেই আরও একবার বিয়ে করেছিলেন তিনি। ২০০৪ সালে প্রথম বিয়ে করেন কাংসাদাল পিপিতপাকদিকে। রাজকুমার একটি সিনিয়র কারিকের সামনে বিবাহের একটি পবিত্র শপথ গ্রহণ করেন এবং তারপর কাংসাদালের সঙ্গে রিং বিনিময় করেন। যিনি দক্ষিণ থাই প্রদেশ প্যাটানির সংসদ সদস্য সাবেক ভিরোজ পিনিতপাকদিয়ের কন্যা। তখন তিনি ছিলেন কেলানতানের রাজকুমার। বয়স ছিল ৩৫। তার প্রথম স্ত্রীর বয়স ছিল ২২। টানা চার বছর সংসার করেন প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে। এরপর বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে। এ সম্পর্কে খুব বেশি কিছু জানা জায়নি।

 

বিবাহ অনুষ্ঠানে ছিল না কোনো অ্যালকোহলের আয়োজন, রাজা পরেছিলেন মালয়েশিয়ার জাতীয় পোশাক

 

গত বছর ২২ নভেম্বর বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন  প্রেমিক যুগল

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.