শেখ হাসিনাকে চরম বাজে মন্তব্যকারীর সাথে ইউরোপ আ. লীগ

(Last Updated On: এপ্রিল ২২, ২০১৯)

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গালিগালাজ ও চরম বাজে মন্তব্যকারী  মাল্টার সেই  কথিত হাইব্রিড নেতা মশিউর রহমান মশিউরের  আথিতেয়তা গ্রহণ করলেন ইউরোপ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক । শুক্রবার  মাল্টা বিমানবন্দরে এ ঘটনা ঘটে।

সুত্র জানায় , বিশ্বের অন্যতম ছোট , দ্বীপ দেশ মাল্টায় সব মিলিয়ে দু” শতাধিক বাংলাদেশির বসবাস । সেখানে  কয়েক বাংলাদেশী ব্যবসার আড়ালে মানব পাচার ব্যবসায় জড়িত  তাদের মধ্যে অন্যতম মশিউর রহমান মশিউর। লিবিয়া ও অন্যান্য দেশ থেকে ভূমধ্য সাগর দিয়ে মাল্টা সহ ইউরোপের দেশে মানব পাচার করে এরা ।এতে সাগরে ডুবে বাংলাদেশিসহ অনেক অভিবাসীর নির্মম ভাবে নিহত হয়েছে । এসব করে বেশ টাকার মালিক হয়ে যায়  মশিউর। বাংলাদেশের মাগুরার অধিবাসী এক সময়ে ছিলো কট্টর চরম আওয়ামী লীগ বিরোধী তথা জামাত ঘরোনার ।

২০১৬-২০১৭তে  ফেইসবুকে অজস্র পোস্টে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা সহ সরকারের সকল কর্মকান্ডে নগ্ন ও ন্যাক্কার জনক ভাষায় গালি গালাজ করে। । প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা , সজিব ওয়াজেদ জয় , ওবায়দুল কাদের , আবুল মাল মুহিত , সাবেক সিইসি, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লিয়াকত সিকদারসহ বিভিন্ন জন সম্পর্কে গালিগালাজ ও চরম বাজে মন্তব্য করেন । মন্তব্যে শেখ হাসিনার জন্মে ভারতীয় …. মিক্স , সজিব ওয়াজেদ জয় নাস্তিক সহ প্রকাশের মত নয় এমন মন্তব্য প্রকাশ করেন । এই হাইব্রিড এমনকি নিজের ফেসবুক আইডি পর্যন্ত পরিবর্তন করে ফেলেছেন। এখন সেই পুরা আওয়ামী লীগার এবং হবু আওয়ামী লীগ নেতা।

জানা যায় , প্রধানমন্ত্রীর জার্মানির মিউনিখ সফরের সময় গত ১৬ ফেব্রয়ারি ইউরোপ আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি ঘোষিত মৌখিক ভাবে। কিন্তু দীর্ঘ দুইমাস পরেও কমিটির কোন কোন পরিধি বৃদ্ধি করতে পারেনি সভাপতি নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মুজিবর রহমান । তাদের ইচ্ছেমত  সংগঠন পরিচালিত হচ্ছে।  স্বাধীনতার মাসের ৩১ দিন পার করে এপ্রিল মাসে ৭ এপ্রিল অস্ট্রিয়াতে ইউরোপ আওয়ামী লীগের স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়। মোটামুটি ইউরোপের সকল দেশের আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা যোগদান করে।

মাল্টা থেকে আগত হাইব্রীড মশিউর রহমান মশিউরকে মঞ্চে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। অতচ ত্যাগী -পরিক্ষিত অনেকের ভাগ্যে সেই পরিচয় হবার সুযোগ মিলেনি।   তাকে নেতা বানানোর জন্য দু” শতাধিক বাংলাদেশির বসবাস মাল্টায়  তড়িঘড়ি আওয়ামী লীগের সম্মেলন নামে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অভিযোগ রয়েছে ইউরোপ আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান সেজন্য ৩ দিন আগে থেকে মালটা গিয়ে হাজির হয়েছেন রহস্যজনক ভাবে।

সুত্র জানায়  সভাপতি নজরুল ইসলাম নাকি বলেছেন , ফেসবুকের কত কথায় লেখা হয়। তাই মাল্টার সেই লোককে নেতা বানাতে নাকি আর্থিক লেনদেনের কথা বলা হচ্ছে। ইউরোপ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বর্তমান সভাপতি নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মুজিবর রহমানেরর চরম বিতর্কিত কর্মকান্ডে খুব বিব্রত। আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পাশাপাশি অন্য দেশের হাউব্রীড নেতাদেরকেও মাল্টায় দেখা গেছে ।

সাধারন নেতা কর্মীদের সাথে তেমন দেখা না গেলেও যেখানে হাইব্রীড, ব্যবসায়ী -টাকাওয়ালা সেখানেই এই দুই নেতাকে দেখা যাচ্ছে।

এই দুই মাসে বিতর্ক যেন পিছন ছাড়ছে না এই শীর্ষ দুই নেতাকে ।

এসব নিন্দনীয় কাজের অনেকেই প্রতিবাদ করছেন সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ।

এদিকে ফ্রান্স বাংলা প্রেস ক্লাব সভাপতি দেবেশ বড়ুয়া জানান , ইউরোপে জামাতী ও তাদের উত্তরসরীরা আওয়ামী লীগ নেতাদের চারপাশে মৌমাছির মতো ভোঁ ভোঁ করছে।

 

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.