জার্মান আওয়ামী লীগের সম্মেলন ২৭ জুলাই

(Last Updated On: জুলাই ২৬, ২০১৯)

জার্মানির বাণিজ্যিক শহর ফ্রাঙ্কফুর্টে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জার্মান আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন, যাকে ঘিরে সেখানকার পাশাপাশি ইউরোপের বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত সংগঠনটির নেতা-কর্মীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে উৎসাহ ও উদ্দীপনা।

আগামী শনিবার অনুষ্ঠিতব্য এ সম্মেলন উপলক্ষে জার্মান আওয়ামী লীগের সভাপতি বসিরুল আলম চৌধুরী সাবু এক বিবৃতিতে বলেন, “আসন্ন সম্মেলনে জার্মান আওয়ামী লীগের সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের মাধ্যমে জার্মান আওয়ামী লীগের আগামী দিনের নেতৃত্ব নির্বাচিত হবে।”

জার্মান আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে কাউন্সিলরদের মাধ্যমে সরাসরি ভোটের দ্বারা আগামী দিনের নেতৃত্ব সম্মেলন পরিচালনা কমিটি মাধ্যমে নির্বাচনের সবরকম প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে বলে বসিরুল আলম চৌধুরী সাবু জানিয়েছেন।

কাউন্সিলর হিসাবে জার্মান আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শ্রী অনিল দাস গুপ্ত ও প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক আতিক উল্লাহসহ সাবেক ও বর্তমান নেতা ও কর্মীদের সবাইকে রাখা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন বর্তমান সভাপতি বসিরুল আলম চৌধুরী সাবু।

দেশি ও বিদেশি পর্যবেক্ষকদের উপস্থিতিতে প্রধান অতিথি হিসাবে থাকবেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সংসদ সদস্য অবসরপ্রাপ্ত লেফটেনেন্ট কর্নেল ফারুক খান, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা শ্রী অনিল দাস গুপ্ত, সংসদ সদস্য তানভীর হাসান ছোট মনির, সর্ব ইউরোপীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি এম নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান।

এছাড়া এ ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে আরও উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে- ইউরোপের বিভিন্ন দেশের আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা।

 

২৭ জুলাইয়ের সম্মেলনে জার্মান আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে কারা লড়বেন তা নিয়ে ইতিমধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে জোরদার।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফিনল্যান্ড সফরে জার্মান আওয়ামী লীগের সভাপতি পদের জন্য বর্তমান সভাপতি বসিরুল আলম চৌধুরী সাবুকেই রাখার ইঙ্গিত দেওয়ার পর তার প্রতিদ্বন্দ্বি পাওয়া যাবে না বলেই ধরে নেওয়া হচ্ছে। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় সহ সভাপতি জিল্লুর রহমান (মানহাইম)-কেও কোন কোন নেতা-কর্মী সভাপতি পদে দেখতে চান বলে জোর প্রচারণা চালাচ্ছে।

এছাড়া বর্তমান সাধারন সম্পাদক শেখ বাদল আহমেদ দীর্ঘদিন দলীয় কার্যক্রম ও রাজনীতি থেকে দূরে থাকায় আগামীতে প্রার্থী হচ্ছেন না বলে সেটা মোটামুটিভাবে নিশ্চিত।

স্থানীয় নেতাকর্মীদের আলোচনায় ও সোশ্যাল মিডিয়ার প্রচারণায় প্রার্থী হিসেবে যাদের নাম আলোচনায় আসছে তারা হলেন-

সহ-সভাপতি ইউনুস আলী খান(মাইজ), মিজানুর খান (বার্লিন), সহ-সভাপতি হাবিব সরকার (মানহাইম), গতবারের সাধারণ সম্পাদক পদে পরাজিত প্রার্থী মাহফুজ ফারুক (ফ্রাঙ্কফুর্ট), জাহিদুল ইসলাম পুলক (ফ্রাঙ্কফুর্ট), মোবারাক আলী ভুঁইয়া বকুল (কোলন), সাংগঠনিক সম্পাদক আনিছুল ইসলাম তালুকদার (মিউনিখ), সাংগঠনিক সম্পাদক আব্বাস চৌধুরী (ভিজবাডেন) এবং সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিবুর রহমান (কেমনিজ)।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.