এখন তারা নীতিবান সেজে বক্তৃতা দিয়ে বেড়াচ্ছেন। হায় রাজনীতি!

(Last Updated On: অক্টোবর ৭, ২০১৯)

মোস্তফা ফিরোজঃ ক্ষমতা থাকলে সম্রাট না থাকলে সদরঘাট সম্রাটের গ্রেফতারকে ঘিরে ফেসবুকে এখন ছবির ছড়াছড়ি। মনোযোগ দিয়ে দেখছি। আর ভাবছি। মাথার উপর থেকে ক্ষমতার ছাতা যখন সরে যায়, তখন রাজা হয়ে যায় ফকির অথবা সম্রাট হন পথের ভিখারি। স্ত্রীও পাশে থাকে না।

আজ সম্রাটের স্ত্রী শারমিন মিডিয়াকে বলেছে, জুয়ার বিরুদ্ধে এই অভিযান আরো আগে চালানো উচিৎ ছিলো। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়েছেন ক্যাসিনোর বিরোধী অভিযানের জন্য। হায়! সম্রাটের টাকায় দল চলতো বলেও দাবি তার স্ত্রীর। কিন্তু তার সংসার চলতো কার টাকায়? এতো যে বিত্ত বৈভব, এসব কার অবদান? সম্রাটের জুয়ার টাকায় এতো দিন দিনাতিপাত করে এখন জুয়ার বিরুদ্ধে অবস্থান! কই এই অভিযানের আগেতো আওয়াজ শুনি নাই! জুয়াড়ু স্বামীর সংসার করবো না বলে তো কোন বিদ্রোহ হলো না! এখন সম্রাট যখন বিপাকে তখন স্ত্রীর মুখে নীতিকথা। একেই বলে দুর্ভাগ্য! সম্রাটের পাশে নেই তার স্ত্রী। সরে গেছে সম্রাটের উচ্ছিষ্টভোগীরাও।

সম্রাটের জুয়া ও অবৈধ অর্থের ভাগ পেয়ে যারা বিত্ত বিলাসে মত্ত ছিলো আজ তারা নিখোঁজ। এখন সেই সুবিধাভোগীরা সম্রাটকে চিনে না। অথচ তারাই সম্রাটকে ইচ্ছেমতো এতোদিন ব্যবহার করেছে। তাকে দিয়ে অপকর্ম করিয়ে সুবিধা হাতিয়ে নিয়েছে। এখন তারা নীতিবান সেজে বক্তৃতা দিয়ে বেড়াচ্ছেন। হায় রাজনীতি!

ফেইস বুক থেকে

মোস্তফা ফিরোজ ।

হেড অব নিউজ, বাংলাভিশন।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.