মর্ডান স্কুলে কেন? সমগ্র কুমিল্লাতে দূর্নীতি মুক্ত করুন ঃ এমপি সীমা

(Last Updated On: অক্টোবর ১৩, ২০১৯)
কুমিল্লায় এক সংবাদ সম্মেলনে মুক্তিযুদ্ধ সংগঠক প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা অধ্যক্ষ আফজাল এডভোকেটের পরিবার আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তার কন্যা কুমিল্লার মহিলা এমপি সীমা লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আর বক্তব্য শেষে তিনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন।
সীমা তার বক্তব্যে বলেন তার বাবা এ পর্যন্ত কুমিল্লাতে প্রায় ২২ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেছেন। যার মধ্যে বঙ্গবন্ধু আইন কলেজ কুমিল্লা মর্ডান স্কুল অন্যতম।
ইতিমধ্যে কুমিল্লা মর্ডান স্কুলে দূর্নীতি হচ্ছে ধুয়া তুলে কুমিল্লা সদরের এমপি জনাব হাজি বাহার তাহার অনুসারি কতিপয় শিক্ষক কুমিল্লা মর্ডান স্কুলকে প্রতিষ্ঠাতা পরিবার আফজাল খান সাহেবের পরিবারের নিকট থেকে ছিনিয়ে নেবার পায়তারা করছেন। ইতিমধ্যে দাতা সদস্য হিসাবে তাদের পরিবারের সদস্যদের নাম কেটে দিয়ে এমপি বাহার উনার একক আধিপত্য বিস্তারের জোর চেষ্টা করছেন।
সীমা দাবি করেন
বিগত পাচ বছরে প্রতিষ্ঠানটির দুরনীতি মুক্তির ধুয়া তুলে এর শিক্ষার মানের বারোটা বাজিয়েছেন।
দৃশ্যতঃ ছাত্র ছাত্রীদের বেতন কমানো হলেও বিভিন্ন খাতে খরচ বাড়িয়েছেন।
এমপি বাহার স্কুলটির নিয়ন্ত্রণ নেবার পর থেকে এই পরযন্ত তিনজন ছাত্র ঈগল গ্রুপের হাতে নিহত হয়েছে বলে জানান। বলেন ছাত্ররা এখন আর সুশৃখল নয়।
মরডান স্কুলের তহবিল প্রসংগে তিনি বলেন আমার বাবা চাইলে এখানে স্কুল প্রতিষ্ঠা না করে এখানে অন্যকিছু করতে পারতেন। তিনি এই স্কুল প্রতিষ্ঠা করে প্রায় পাচটি ভবনে শতাধিক কক্ষের ইমারত তৈরি করেছেন এবং স্কুলের প্রয়োজনে বহুটাকার বিনিময়ে বেশ কিছু জমিন ক্র‍য় করেছেন।
ইতিপূর্বে হাজি বাহার নিয়ন্ত্রিত স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি কর্তৃক ছাত্র ছাত্রীদের বেতন কমিয়ে দেওয়া প্রসংগে সীমা বলেন। বেতন ২০০ টাকা কমিয়ে দিলেও বিভিন্ন খাত থেকে নানা অজুহাতে ছাত্র ছাত্রীদের নিকট থেকে টাকা আদায়ের অভিযোগ তুলেন। বিদ্যালয়ের ফান্ড ব্যবহার করে সংবর্ধনার ও অভিযোগ তুলেন।
তিনি বলেন সারা কুমিল্লাতে কমিশন পারসেন্টেজের রাজত্ব চলছে। এমপি বাহার চাচা তিনি হাই স্কুল ইবনে তাইমিয়াতে জান না কারন সেখান থেকে তিনি ঠিক ঠিক খরচ পাচ্ছেন।
আমরা মানুষের সন্তানদের শিক্ষার ব্যবস্থা করেছি। আমরা কেন উনাকে অর্থ দিবো। তিনি শুধু কুমিল্লা মর্ডার স্কুলেই দূর্নীতি দমন করবেন।
অন্যকোথাও তিনি ন্যায়নীতি প্রতিষ্ঠা করবেন না।
এছাড়াও ২০০৮ সালের এমপি বাহার সাহেব তার প্রতিশ্রুত ওয়াদা রাখেন নি দাবি করেন সীমা।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন শুধু মর্ডান স্কুল কেন সারা কুমিল্লাতেই দূর্নীতি মুক্ত হোক।
 

সংবাদ সম্মেলনে অধ্যক্ষ আফজল খান,স্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষক নার্গিস আফজল,এফবিসিআইএর পরিচালক মাসুদ পারভেজ খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.