সাকিবের সঙ্গে জুয়াড়ির যেসব কথা হয়েছিল

(Last Updated On: November 18, 2019)

ম্যাচ ফিক্সিংয়ে অংশ না নিয়েও নিষিদ্ধ হলেন সাকিব আল হাসান। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনবার জুয়াড়ির প্রস্তাব পেয়েও তা আইসিসিকে জানাননি। যে কারণে তাকে সব ধরনের পেশাদার ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ করে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা।

২০১৭ সালে সাকিবের সঙ্গে প্রথম যোগাযোগ করে ভারতীয় জুয়াড়ি দীপক আগারওয়াল। সেবার সাকিবের সঙ্গে দেখা করার অনুরোধও করেন তিনি। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের কাছ থেকে আরও কিছু ক্রিকেটারের ফোন নম্বর জানতে চান ওই জুয়াড়ি।

এরপর ২০১৮ সালে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ত্রিদেশীয় সিরিজের সময় ফের সাকিবের সঙ্গে যোগাযোগ করেন আগারওয়াল।

২০১৮ সালের ১৯ জানুয়ারি একটি ম্যাচে সেরা খেলোয়াড় হওয়ার জন্য সাকিবকে অভিনন্দন জানান আগারওয়াল।

এরপর আরেকটি হোয়াটসঅ্যাপ বার্তায় সাকিবকে প্রশ্ন করে আগরওয়াল বলেন, ‘আমরা কি কাজ করছি? নাকি আইপিএল পর্যন্ত অপেক্ষা করব?’

আরও একটি বার্তা পাঠান আগারওয়াল। তিনি সাকিবকে উদ্দেশ্য করে লেখেন, ‘ভাই, এই সিরিজে কোনো কিছু আছে?’

প্রসঙ্গত, জুয়াড়িদের কাছ থেকে তিনবার ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার পরও তা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলকে (আইসিসি) না জানানোর অপরাধে সাকিবকে ২ বছর নিষিদ্ধ করে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা।

কিন্তু ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ায় সাকিবের ওপর সন্তুষ্ট আইসিসি। নিষেধাজ্ঞা থাকা অবস্থায় আইসিসির বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নেয়ার শর্তে সাকিবের শাস্তি এক বছর স্থগিত করেছে আইসিসি।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.