সৌদিতে নারী কর্মী পাঠানো বন্ধ করবো না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

(Last Updated On: November 1, 2019)

সৌদি আরবে এখনই নারীকর্মী পাঠানো বন্ধ করার পরামর্শ দিয়েছেন মানবাধিকার কর্মী ও অভিবাসন সংশ্লিষ্টরা। ধর্ষণসহ নানা নির্যাতনের শিকার হয়ে ফিরে আসছে তাদের বড় একটি অংশ। নির্যাতন সইতে না পেরে আত্মহত্যাও করছেন অনেকে।

তবে ফেরত আসা ও নির্যাতনের শিকার নারীর সংখ্যা তেমন একটা উল্লেখযোগ্য নয় জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, সৌদি আরবে নারীকর্মী পাঠানো বন্ধ করার কোনো পরিকল্পনা এখন নেই।

বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) মন্ত্রনালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেন, নারীদের আমরা পেছনে ফেলে রাখতে চাই না। নারীরা সৌদি আরব যেতে চাইলে আমরা বাধা দেবো না। কারণ, আমাদের দেশে নারী-পুরুষ সমান।

সৌদিতে কাজ করতে গিয়ে নারীরা ধর্ষিত হওয়ার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, অন্দরমহলে যারা কাজ করে তারা অভিযোগ করলে আমরা সৌদি সরকারকে তা জানাই। কিন্তু প্রায় সবাই অভিযোগটা সেখানে করেন না। আমরা সৌদি সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করব, তারা আইনগত ব্যবস্থা নেবে।

অভিযোগ করার মতো সুযোগ সেখানে সৌদিতে থাকে না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের প্রেক্ষিতে মন্ত্রী বলেন, এ তথ্য সত্য নয়। সেখানে আমাদের সেফ হোম আছে, দূতাবাসের কর্মকর্তারা আছেন। সৌদি স্বীকার করেছে, কিছু কিছু ভিক্টিমাইজ হচ্ছে। তবে তা ব্যক্তি বিশেষের কারণে। সেদেশের সরকার তাদের ভিকটিম বানাচ্ছে না।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.