সর্বশেষ সংবাদ

অর্থমন্ত্রীর বাসায় অর্থ চুরি, চোর পলাতক!

(Last Updated On: January 2, 2020)

ইত্তেফাক: অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের বাসা থেকে অর্থ চুরি হওয়ার ১৯ দিন পরও উদ্ধার হয়নি সেই অর্থ। এখনো খোঁজ মেলেনি চোরের। স্ত্রী কাশমিরী কামালের আলমারির ড্রয়ার ভেঙে নগদ অর্থ চুরি করে পালানোর অভিযোগে এক গৃহকর্মীর বিরুদ্ধে গুলশান থানায় একটি মামলা হয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অভিযুক্ত গৃহকর্মী সালমা বেগমকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

মঙ্গলবার দায়ের করা ওই মামলার এজাহারের ভাষ্য অনুযায়ী, মন্ত্রীর স্ত্রী কাশমিরী কামালের ড্রয়ার থেকে ৭০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়েছে গৃহকর্মী সালমা। গুলশান থানায় চুরির মামলা। ২০১৯ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর কাশমিরী কামালের গুলশান ২ নম্বরের ১০৩ নম্বর রোডের ১১ নম্বর বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে যোগ দেন সালমা বেগম (৪৫)। তিনি সর্বক্ষণ বাসায় থাকতেন। গত ১৩ ডিসেম্বর সকাল ১০টায় কাশমিরী কামালের বাসার আলমারির ড্রয়ার ভেঙে নগদ ৭০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যান ওই গৃহকর্মী। পরে ওইদিন বেলা ১১টা নাগাদ গৃহকর্মী সালমা বেগমকে খুঁজে না পেয়ে তাকে ফোন করেন কাশমিরী কামাল। কিন্তু সালমা বেগমের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

পরে গত ১৫ ডিসেম্বর ওই গৃহকর্মীর সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ হয় কাশমিরী কামালের। সে সময় চুরির কথা স্বীকার করে চুরি করা টাকা ফেরত দেয়া হবে বলে জানান সালমা বেগম। কিন্তু এরপর থেকে সালমা বেগম সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে আত্মগোপনে চলে যান।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এই গৃহকর্মী সালমা বেগমের বাবার নাম শাহাদৎ হোসেন। তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুরের পার্বতীপুর থানা এলাকার আত্রাই গ্রামে। ২০১৯ সালের শুরুতে ঢাকায় আসেন সালমা। এরপর গুলশানের এক বাসায় কাজ নেন। সেখানে গত বছরের আগস্ট পর্যন্ত কাজ করেন তিনি। পরে কাশমিরী কামালের বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে যোগদান করেন।

এই মামলার বাদী লোটাস কামাল গ্রুপ অব কোম্পানির ম্যানেজার জাহাঙ্গীর হোসেন।

বিশ্বসেরা অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল

বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালকে বিশ্বের সেরা অর্থমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক বিজনেস পত্রিকা দ্য ব্যাংকার।

আজ বৃহস্পতিবার মুস্তফা কামালকে ‘গ্লোবাল ফিন্যান্স মিনিস্টার অব দ্য ইয়ার’ পুরস্কারে ভূষিত করে পত্রিকাটি।

এবারই প্রথম বাংলাদেশের কোনো অর্থমন্ত্রী এই পুরষ্কারে ভূষিত হয়েছেন।

অর্থমন্ত্রীদের আর্থিক খাতে গতিশীলতা আনয়নসহ দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়ন নিশ্চিতকরণে গৃহীত পদক্ষেপসহ সার্বিক বিবেচনায় এ পুরস্কারে ভূষিত করা হয়ে থাকে। এশিয়া-প্যাসিফিক, আমেরিকা, আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপ- এই পাঁচটি অঞ্চল থেকে পাঁচ জন অর্থমন্ত্রীকে পুরস্কৃত করা হয়। এবং তাদের মধ্য থেকে একজনকে বিশ্বের মধ্যে শ্রেষ্ঠ অর্থমন্ত্রী ঘোষণা করা হয়।

 

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.