করোনাভাইরাস আক্রান্ত ১০ হাজার রোগীর মরদেহ পুড়িয়ে ফেলেছে চীন

(Last Updated On: March 6, 2020)

ডেইলে মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ বা করোনাভাইরাসের আবির্ভাবস্থল উহানে উচ্চমাত্রার সালফার ডাইঅক্সাইডের ব্যাপক উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।বিজ্ঞানীদের ভাষ্য মতে, মানবদেহ পুড়িয়ে ফেলার সময় সালফার ডাইঅক্সাইড উৎপাদিত হয়। সেইসঙ্গে মেডিকেল বর্জ্য ভস্মীভূত করলেও এমনটি ঘটে।বিজ্ঞানীরা ধারণা করছেন, এটি করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের মরদেহ পুড়িয়ে মারার ফলে হতে পারে।ডেইলি মেইল

ডেইলি মেইলের খবরে আরও বলা হয়েছে, সম্প্রতি উপগ্রহ থেকে নেয়া চিত্রে দেখা গেছে, উহানের চারপাশে এসও২-এর উপস্থিতি উদ্বেগজনকহারে বেড়েছে। এছাড়া কোয়ারেন্টিনের অধীনে থাকা চোংকিং শহরেও উচ্চমাত্রার সালফার ডাইঅক্সাইডের উপস্থিতি রয়েছে।

এর আগে এ মাসের শুরুতে চীনের স্বাস্থ্য কমিশন বলেছে, করোনায় আক্রান্ত মৃতদেহ শিগগিরই দাহ করা হবে।

চেক প্রজাতন্ত্র ভিত্তিক আবহাওয়া বিষয়ক ওয়েবসাইট উইন্ডি ডটকম প্রকাশ করেছে, চীনের উহানে সপ্তাহের শেষ দিনে প্রতি ঘনমিটারে ১ হাজার ৩৫০ মাইক্রোগ্রামের কাছাকাছি সালফার ডাইঅক্সাইড দেখা গেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, প্রতি ঘনমিটারে ৫০০ মাইকোগ্রামের ডোজ ১০ মিনিটের বেশি ছাড়িয়ে যাওয়া উচিত না।

এদিকে এখন পর্যন্ত চীনে এই ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ৩ শ’ ৮১ জন। চীনের স্বাস্থ্য কমিশনের প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ৬৩ হাজার ৯ শ’ ২২ জন। এছাড়া চীনের বাইরে এই ভাইরাসে ফিলিপাইনে একজন এবং হংকংয়ে আরেক জনের মৃত্যু হয়েছে। পাশাপাশি বিশ্বের প্রায় ২৮ টি দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.