ইতালিতে আজ মৃত্যু ৭২৭, মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১৩ হাজার ১শ ৫৫

(Last Updated On: April 5, 2020)

জালাল হাওলাদার, ইতালিঃ করোনাভাইরাসের থাবায় ইতালিতে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমছে আক্রান্ত বেড়েছে ।

আজ বুধবার মৃত্যু ৭২৭ -জন। এই নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১৩হাজার ১শ ৫৫-জন । আজ  সুস্থ হয়েছেন ১হাজার ১শ ১৮জন , এ নিয়ে  ১৬হাজার ৮শ ২৬ জন সুস্থ হয়েছেন। আইসিইউতে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে আছেন ৪ হাজার ৩৫জন।    

আজ আক্রান্ত (পজিটিভ) হয়েছে ২হাজার ৯শ  ৩৭জন,  আক্রান্তের সংখ্যা চিকিৎসাধীন(পজিটিভ) বেড়ে হাজার ৭৭হাজার ৬শ ৩৫  জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ১০ হাজার ৫শ ৭৪জন ( মৃত্যু ,আক্রান্ত ও সুস্থ) ।

নিহতের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আজ ইতালি জুড়ে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ভাবে উত্তোলন এবং দুপুর ১২ টায় এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয় ।

আক্রান্তদের মধ্যে শতকরা ৫৫ ভাগ অর্থাৎ ৪২ হাজার ৫শ ৮৮জনকে নিজ আবাসে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ।

এই ভাইরাসে এই নিয়ে ৬৩ চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিতে গিয়ে এ পর্যন্ত ৮ হাজার ৩ শ ৫৮জন স্বাস্থ্য বিভাগের লোক আক্রান্ত হয়েছে।

 অবসরপ্রাপ্ত ডাক্তার,নার্সও এম্ন্বুলেন্স কর্মি স্বাস্থ্যসেবারব্রতে মাঠে নেমেছে।সরকারের এই বিচক্ষণতা প্রশংসনীয়।

মঙ্গলবার মৃত্যু ৮৩৭জন ,  আক্রান্ত (পজিটিভ) ২হাজার ১ শ ০৭ জন, সোমবার মৃত্যু ৮১২ ও আক্রান্ত (পজিটিভ) ১৬শ ৪৮ জন,

রোববার মৃত্যু ৭৫৬ জন ও আক্রান্ত ৩ হাজার ৮শ ১৫ জন। .শনিবার মৃত্যু  ৮৮৯ জন ও আক্রান্ত ৩ হাজার ৬শ ৫১ জন।

শুক্রবার রেকর্ড মৃত্যু ৯৬৯ জন, আক্রান্ত ৪হাজার ৪শ ১ জন , বৃহস্পতিবার  মৃত্যু ৬ চিকিৎসকসহ মৃত্যু ৭১২, বুধবার মৃত্যু ৬৮৩ জন ও আক্রান্ত (পজিটিভ) ৩৪৯১জন, মঙ্গলবার মৃত্যু ৭৪৩ জন, আক্রান্ত (পজিটিভ) ৩৬১২জন, সোমবার মৃত্যু ৬০১ ,আজ আক্রান্ত (পজিটিভ) ৩৭৮০ জন, রোববার মৃত্যু ৬৫১ , আক্রান্ত (পজিটিভ) ৩৯৫৭ জন, ইতালিতে শনিবার রেকর্ড মৃত্যু হয়েছিল ৭৯৩জনের ও আক্রান্ত (পজিটিভ) হয়েছে ৪৮৪১ জন ।

ইতালির ২০ অঞ্চলের মধ্যে লোম্বারদিয়ায়ই করোনার আঘাত সবচেয়ে বেশী (মিলান, বেরগামো, ব্রেসিয়া, লদি, ক্রেমনাসহ ১১টি প্রদেশ)আজ এ অঞ্চলে মারা গেছে ৩৯৪জন, আক্রান্ত ১৫৬৫  মত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৬ হাজার ৬শ ৮৩ জন, আক্রান্ত ৪১ হাজার ০৭  জন ।

সূত্রঃ লা রিপুবলিকা।

ইতালি জুড়ে লক্ষাধিক জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে কারন ব্যতীত বাসার বাহিরে চলাচলের জন্য ।

বিশ্বে করোনা ভাইরাস – সর্বশেষ তথ্য (বুধবার  http://www.worldometers.info/coronavirus/ )

আজ মৃত্যু ৪ হাজার ১শ ৩৬জন।

মৃত্যুর সংখ্যা ৪৬হাজার ৪ শ ৩৮  জন। আক্রান্তদের সংখ্যা ৯লাখ ২৬ হাজার ৬শ ২৫ জন । সুস্থ হয়েছেন ১লাখ ৯৩হাজার ৪শ ৩১জন ।

এই ভাইরাসে বাংলাদেশ মৃত্যু ১জন , এই সংখ্যা বেড়ে ৬, আজ আক্রান্ত ২, মোট আক্রান্তে ৫৪।সুস্থ হয়েছেন ২৬জন ।

এদিকে আজ চিনে মৃত্যু হয়েছে ৫ জনের ,আক্রান্ত ৭৯ জন এই নিয়ে চিনে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৩৩০৫  ও আক্রান্ত ৮১হাজার ৫শ ১৮জন , সুস্থ হয়েছেন ৭৬হাজার ০শ ৫২জন।

আমেরিকায় আজ মৃত্যু ৩৩০জন ও মৃত্যু সংখ্যা বেড়ে ৪ হাজার ৬ শ ৯৭ জন। আজ আক্রান্ত ২২ হাজার ১শ ৮৪ জন, মোট আক্রান্ত  ২ লাখ ১০ হাজার ৭শ ১৪ জন, সুস্থ হয়েছেন ৮হাজার ৬শ ৯৮জন।

স্পেনে আজ মৃত্যু হয়েছে ৬৬৭ জন, এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ১শ ১৩জন ।আজ আক্রান্ত ৬হাজার ৪শ ৮১ জন ,আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১লাখ ২ হাজার ১শ ৩৬জন, সুস্থ হয়েছেন ২২হাজার ২শ ৪৭জন।

ফ্রান্সে আজ মৃত্যু ৫০৯ জন , মোট মৃত্যু ৪ হাজার ০শ ৩২ জন ,আক্রান্ত ৫৬ হাজার ৯শ ৫৯জন ,সুস্থ হয়েছেন ১০হাজার ৯শ ৩৪ জন।

যুক্তরাজ্যে আজ মৃত্যু ৫৬৩ জন, এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২হাজার ৩শ ৫২ জন  ,আক্রান্ত হয়েছেন ২৯হাজার ৪শ ৭৪ জন, সুস্থ হয়েছেন ১৫৩জন।

ইরানে আজ মৃত্যু হয়েছে ১৩৮ জনের ,আজ আক্রান্ত ২হাজার ৯শ ৩৮জন , এই নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে  ৩হাজার ০শ ৩৬জন ও আক্রান্ত ৪৪হাজার ৬শ ০৫ জন ,সুস্থ হয়েছেন ১৫হাজার ৪শ ৭৪ জন।

জার্মানিতে আজ ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে, এই নিয়ে ৮২১ মৃত্যু জনের ,আক্রান্ত ৭৪হাজার ৫ শ ৮ জন, সুস্থ হয়েছেন ১৬হাজার ১শ ০জন।

সুইজারল্যান্ডে আজ ২৮জনের মৃত্যু হয়েছে, এই নিয়ে ৪৬১ মৃত্যু জন ,আক্রান্ত ১৭হাজার ১ শ ৩৭ জন, সুস্থ হয়েছেন  ২ হাজার ৯শ ৬৭ জন।

নেদারল্যান্ডে আজ ১৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে, এই নিয়ে মৃত্যু ১ হাজার ১শ ৭৩ জন ,আক্রান্ত ১৩হাজার ৯শ ৬৪ জন, সুস্থ হয়েছেন ২হাজার ১শ ৩২জন।

বেলজিয়ামে আজ মৃত্যু ১২৩ , মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৮২৮ জনের ,আক্রান্ত ১২হাজার ৭শ ৭৫ জন , সুস্থ হয়েছেন ১হাজার ৬শ ৯৬ জন।

জাপানে আজ ৩জনের মৃত্যু হয়েছে, এই নিয়ে  মৃত্যু ৩২জনের ,আক্রান্ত  ৯২৩জন, সুস্থ হয়েছেন ১৪৪ জন।

দক্ষিন কোরিয়ায় আজ মৃত্যু ৮,আক্রান্ত ৭৬ জন, এই নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ১৩৯ ও আক্রান্ত ৯ হাজার ৩শ ৩২ জন ,সুস্থ হয়েছেন ৪হাজার ৫শ ২৮জন।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.