সর্বশেষ সংবাদ

বোয়ালমারীতে চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ

(Last Updated On: April 18, 2020)

ফরিদপুর প্রতিনিধি ঃ  ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ঘোষপুর ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতাধীন ১০ টাকার চাল বিতরণে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করার পর চাল বিতরণ কার্যক্রম স্থগিত করে বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে।

 অভিযোগ দামাচাপা  দিতে সাংবাদিক এবং প্রশাসনকে ম্যানেজ করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে চেয়ারম্যান চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন ।

ঘোষপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড মেম্বার খলিলুর রহমান বলেন, বিগত ২০১৮-১৯ ও ২০১৯-২০ অর্থ বছরের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির জন্য ইউপি চেয়ারম্যান মনগড়া তালিকা করে এসব নামের বিপরীতে চাল তুলে আত্মসাত করছেন।
ওই ইউনিয়নে ১১৫৬ জনকে কার্ড দেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে এক তৃতীয়াংশ কার্ড সংশ্লিষ্টদের হাতে না দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান নিজেই চাল তুলছেন। এরপর অর্থ বছর শেষ হওয়ার আগেই গত মার্চ মাসে তিনি আগের তালিকার এক-তৃতীয়াংশ নাম বাদ দিয়ে নিজের মনমতো নতুন নাম দিয়ে তালিকা করেন।
প্রাপ্ত অভিযোগ মতে, প্রতি ওয়ার্ডে মেম্বারদের থেকে ৫০ জনের নাম নেওয়া হয়েছে। অবশিষ্ট ৫০ জনেরও বেশি নাম দিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান। যাদের অনেককে কার্ড না দিয়ে তাদের চাল তুলে নেওয়া হয়েছে। এদের অনেকে তাদের নামে কার্ড ইস্যুর বিষয়টিও জানেননা। তারা চালও পাননি। ৯ নং ওয়ার্ডের ৯৯৫ নম্বর কার্ডের গৌতম কুমার মন্ডল, ৭ নং ওয়ার্ডের গফফার শেখ বলেন, চাল পাওয়াতো দুরের কথা তাদের নামে কার্ড ইস্যুর বিষয়টিই তারা জানেননা। ৩ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার শহিদুল মাতুব্বর বলেন, আমার ভাইয়ের নামে কার্ড করে চাল তুলে নিয়েছে।

এ ব্যাপারে ঘোষপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন বলেন, আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এসব অভিযোগ করা হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে আমি আবারো নতুন করে তালিকা সংশোধন করে জমা দিয়েছি। বিষয়টি মীমাংসা করা হচ্ছে।

বোয়ালমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঝোটন চন্দ বলেন, অভিযোগ পেয়ে ওই ইউনিয়নে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির বর্তমান বরাদ্দের এই চাল বিতরণ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সহকারী কমিশনার (ভূমি) কে অভিযোগ তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছি। তদন্ত চলছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.