কুমিল্লায় করোনায় মৃত বিএনপি নেতার মরদেহ দাফন করলো ছাত্রলীগ

(Last Updated On: May 30, 2020)

মো. কামাল উদ্দিনঃ কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি মো. আবদুস সালাম ভূঁইয়ার মরদেহ দাফন করেছে হ্যালো ছাত্রলীগের টিম। করোনা আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার (২৯ মে) সন্ধ্যায় মারা যান আবদুস সালাম ভূঁইয়া।

এদিন সেখান থেকে মরদেহ বাড়ি আনার পর রাত ২টার দিকে উপজেলার হোসেনপুরে তার নিজের প্রতিষ্ঠিত মাদরাসা মাঠে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। তিনি দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের দুইবারের চেয়ারম্যান ছিলেন।

 

বিএনপি নেতা আবদুস সালাম ভূঁইয়ার মৃত্যুতে শোকবার্তা পাঠিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এছাড়া তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন কুমিল্লা-৪ (দেবিদ্বার) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় বর্তমান সংসদ সদস্য রাজী মোহাম্মদ ফখরুল, একই আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল আহসান মুন্সি, কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আউয়াল খান, হংকং বিএনপির সভাপতি এএফএম তারেক মুন্সি, দেবিদ্বার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জয়নুল আবেদীন, সাধারণ সম্পাদক একেএম মনিরুজ্জামান মাস্টার, উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো. মনিরুল হক ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক মো. গিয়াসউদ্দিনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

las

উল্লেখ্য, কুমিল্লা (উত্তর) জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু কাউছার অনিকের নেতৃত্বে ও উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক ইকবাল হোসেন রুবেলের সার্বিক সহযোগিতায় ‘হ্যালো ছাত্রলীগ’র ‘ওরা ৪১ জন’র টিমের ছাত্রলীগ নেতা নাজমুল হাসান, মো. আনোয়ার হোসেন বাপ্পু, মো. আমির হোসেন, হাফেজ তোফায়েল, ক্বারী কামাল উদ্দিন, হাফেজ নাজিম উদ্দিন ও মাওলানা খালিদ সরকারসহ টিমের সদস্যরা করোনায় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে গোসল, কাফনের কাপড় পরানো, জানাজা প্রদান, কবর খোঁড়া ও দাফনের সার্বিক কাজ সম্পন্ন করে আসছেন।

এলাকার লোকজন বলেন, করোনা আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে যখন মৃত বাবা-মা কিংবা স্বজনের লাশের পাশে ছেলেমেয়ে আত্মীয়স্বজন ও পাড়া-প্রতিবেশীদের কেউ আসার সাহস পায় না, ঠিক তখন ছাত্রলীগের টিম জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনায় মৃত ব্যক্তিদের দাফন করছে।

 

স্থানীয় এমপি রাজী মোহাম্মদ ফখরুল উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতির মৃত্যুতে তার পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান এবং মরদেহ দাফনের জন্য ছাত্রলীগের ‘ওরা ৪১ জন’ টিমকে ধন্যবাদ জানান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হাসান বলেন, দেশের এমন কঠিন সময়ে ছাত্রলীগ মরদেহ দাফনে এগিয়ে এসে অনন্য নজির স্থাপন করেছে। সর্বাধিক ঝুঁকি নিয়ে করোনায় মৃত ব্যক্তিদের দাফন করা একটি মহৎ উদ্যোগ।

 

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.