অর্ধশত নারীকে ফুসলিয়ে যৌন হয়রানি..

(Last Updated On: September 11, 2016)

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার অর্ধশত নারীকে ফুসলিয়ে যৌন হয়রানির পর গোপন ক্যামেরায় তা ধারণ করে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগে বিপ্লব খান (২৫) নামে এক যুবককে খুঁজছে পুলিশ। পাথরঘাটা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামাঞ্চলের ৫০ থেকে ৬০ জন নারী বিপ্লবের এ প্রতারণার শিকার হয়েছেন বলে এখন পর্যন্ত অভিযোগ পাওয়া গেছে।

যৌন প্রতারণার সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে বিপ্লবকে গ্রেপ্তারে পাথরঘাটার নতুন বাজার এলাকায় বিপ্লবের স্টুডিওতে অভিযান চালিয়ে গত বৃহস্পতিবার  যৌন প্রতারণার ২৭ জিবি (গিগাবাইট) ভিডিও উদ্ধার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। তবে প্রতারক বিপ্লবকে এখনো গ্রেপ্তার করা যায়নি। পাথরঘাটার নতুন বাজার এলাকায় ‘মা ডিজিটাল স্টুডিও’ নামে একটি স্টুডিও ব্যবসার আড়ালে বিপ্লব এসব যৌন প্রতারণা চালিয়ে আসছিল।

পাথরঘাটার একাধিক বাসিন্দার কাছ  থেকে জানা গেছে, বিপ্লবের যৌন প্রতারণার শিকার হয়েছেন বিভিন্ন বয়সী অন্তত অর্ধশতাধিক নারী। সম্প্রতি এ ধরনের কয়েকটি ভিডিও স্থানীয়দের মোবাইলে ছড়িয়ে পড়লে  লোকলজ্জার ভয়ে এখন পালিয়ে  বেড়াচ্ছেন ওইসব ভুক্তভোগী নারী ও তাদের স্বজনরা। ভুক্তভোগীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গোপনে ধারণ করা একান্ত মুহূর্তের সেসব ভিডিও ফাঁস করে দেয়ার হুমকি দিয়ে বিপ্লব তার বন্ধুদের সঙ্গেও  যৌনমিলনে বাধ্য করে অনেককে। ফাঁদে ফেলে শুধু যৌন হয়রানি নয়, ভিডিও ফাঁস করে দেয়ার ভয়  দেখিয়ে ওইসব নারীর কাছ থেকে  সে হাতিয়ে নেয় মোটা অঙ্কের টাকাও।

শুধু কিশোরী বা গৃহবধূই নয়, লম্পট বিপ্লবের বিকৃত লালসার শিকার হয়েছেন পঞ্চাশোর্ধ নারীরাও। তারা সবাই এখন বিপ্লবের গোপন ক্যামেরার ফাঁদে বন্দি। দুর্বিষহ জীবন কাটাচ্ছেন ওই সব নারী। ভুক্তভোগী এক কিশোরী (১৫) জানায়, স্কুলের প্রয়োজনে ছবি তুলতে যায় মা ফটো স্টুডিওতে। এ সময় পরিচয় হয় লম্পট বিপ্লবের সঙ্গে। পরে তার মিষ্টি মিষ্টি কথা শুনে বিপ্লবের প্রেমে পড়ে যায় সে। এরপর একদিন ওই স্টুডিওতে  ডেকে নিয়ে তাকে যৌন নির্যাতন করে বিপ্লব। পরে তার অগোচরে  সেই দৃশ্য ক্যামেরাবন্দিও করে সে। এরপর এই দৃশ্য ফাঁস করে দেয়ার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার তাকে পাশবিক নির্যাতন করা হয়।

ভুক্তভোগী এক গৃহবধূ (২৩) জানায়, তার ভিডিওটি ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর তার সংসার ভেঙে গেছে। লজ্জায় বাড়ি থেকে বের হতেও পারছেন না তিনি। গত ৮ই সেপ্টেম্বর গোয়েন্দা পুলিশের বরগুনার ওসি শেখ আব্দুল্লাহর নেতৃত্বে পাথরঘাটা শহরের নতুন বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিপ্লবের কম্পিউটার জব্দ করে পুলিশ। এ সময় ওই কম্পিউটার থেকে বিভিন্ন বয়সের ভিন্ন ভিন্ন নারীর একান্ত মুহূর্তের অর্ধশত ভিডিও ফুটেজ উদ্ধার করা হয়। পরে বিপ্লবের বড় ভাই সাইফুলকে সেখান থেকে আটক করা হয়। এবিষয়ে বরগুনার পুলিশ সুপার বিজয় বসাক জানান, বিপ্লবকে  গ্রেপ্তারের জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। পর্নোগ্রাফি আইন-২০১২ এর কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, পাথরঘাটার বিপ্লবের এসব  গোপন ক্যামেরার ফুটেজ যার কাছে পাওয়া যাবে তার বিরুদ্ধেই আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে পুলিশ।..http://mzamin.com/ সূত্র – মানব জমিন ।

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.