সবাই নেতা আর নেতাঃ ড মোমেন

(Last Updated On: জানুয়ারি ১, ২০১৭)

স্বাধীনতা ৪৫ পরও একাত্তরের প্রেতাত্মারা এখনো ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে।এখনো পাকিস্তানের দালাল বিএনপি- জামায়াত ইতিহাস বিকৃতি করে চলেছে।আমরা এখনো দেখি ধর্মের দোহায় দিয়ে ধর্মান্ধ মানুষ কে ধোকা দিচ্ছে।মাদ্রাসা শিক্ষার নাম করে কওমী মাদ্রাসায় কোরআন শিক্ষা বদলে কোমলমতি শিশুদের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের মন্ত্র শিক্ষা দিচ্ছে।

আমরা যেই উন্নয়নের মহা সড়কের কথা বলছি, আমরা কী সেই উন্নয়ণের মহা সড়কে এখনো আসিন হতে পেরেছি!!!না পারিনি কারণ যারা কেবলি নেতা সেজে বসেছেন, তারা কিন্তু কেবলই নেতা পকেট ভারি করার নেতা।তারা উন্নয়নের মহা সড়ক বুঝেন না। বুঝেন শুধুই টাকা।তাদের নাকের ডগায় কওমী মাদ্রাসায় ইতিহাস বিকৃতির শিক্ষা দেয়া হয়।এসব নেতারা তার খোজ টুকু রাখার ফুসরুত পাননা। এখনো কওমী মাদ্রাসার কোমলমতি শিশুরা জানেনা একাত্তরে পাকিস্তানের সাথে মুক্তিযুদ্ধ হয়েছে,কে বাংলাদেশ গড়ার কারিগর, বাংলাদেশের স্থপতি ।

সেই মহানায়ক জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম আজো অনেক অনেক কওমী মাদ্রাসার ছাত্ররা জানেনা।তারা জানে ধর্মের জন্য পাকিস্তানের মুসলমান রা যুদ্ধ করেছিল।সেই যুদ্ধ আজো অব্যাহত আছে।তাই তাদের সেইভাবেই মিথ্যে বিকৃতি ইতিহাস শিক্ষা দেয়া হচ্ছে।আজ আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীর অভাব নেই।যেখানে যাবে ভুরি ভুরি নেতা আর নেতা।কিন্তু মহাসড়কের স্বাদ গ্রহণ করছে।ইনারা নিজেদের এলাকায় কখনওই উন্নয়নের করবেন বা নিজের এলাকায় কী ঘটছে সেইদিকে খেয়াল টুকু নেই।এরা আদর্শের  ধরাছোঁয়ার বাইরে।কারণ সবাই নেতা আর নেতা।

আজ মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ঢাকার সেগুন বাগিচা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে স্বাধীনতা হলে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় কমিটি এর উদ্যোগে “বিজয়ের ৪৫ বছর ও অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি” শীর্ষক আলোচনা সভার সভাপতি বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক রাষ্ট্রদূত  ড. এ কে মোমেন এসব কথা বলেন ।  

 আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মাননীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ইসমত কাদির গামা ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী ।

স্বাগত বক্তৃতা রাখেন এড মশিউর মালেক প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী সভাপতি, ইসমাইল হোসেন যুগ্ম সম্পাদক ,বাবু উত্তম সাংগঠনিক সম্পাদক, শাকিল খান প্রচার সম্পাদক, নাজনিন আলম সহ সম্পাদিকা কেন্দ্রীয় কমিটি।  অষ্ট্রেলিয়া শাখা সভাপতি ড. মিল্টন হাসনাত,নেদারল্যান্ড শাখা সাধারণ সম্পাদক  শাহাদাৎ হোসেন তপন ,জাপান শাখা সভাপতি রফিক ফরাজি ,রাশিদা হক কনিকা জায়াদিন, মহানগর সভাপতিবেলাল শাহ,মহানগর সহ সভাপতি তুষার রহমান সাবু । উপস্থাপনা করেন সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ফেরদৌস আলম । এছাড়াও বিভিন্ন সংগঠনের নেত্রীবৃন্দ সহ বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় ও মহানগর নেতৃবৃন্দসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।

 

Print Friendly, PDF & Email

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.