শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০৩:৫১ অপরাহ্ন

আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনকে ঘিরে দল ও সরকারে আসছে পরিবর্তন

বিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকা
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২২
  • ১৭৪৬ বার

আগামী ডিসেম্বরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২২তম জাতীয় সম্মেলন হতে পারে।সম্মেলনের প্রস্তুতি হিসেবে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নতুন সদস্য সংগ্রহ সংগ্রহ ও সদস্য নবায়ন শুরু হয়েছে। সহযোগী সংগঠনগুলোকেও সম্মেলন করার নির্দেশ দিয়েছে আওয়ামী লীগ। তিন বছর পর পর আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয়, সেই হিসেবে আগামী ডিসেম্বরে সম্মেলনের নির্ধারিত সময়।কেন্দ্রীয় সম্মেলনের আগে শাখা সম্মেলন শেষ করার তাগিদ দেয়া হয়েছে। আগামী ২০২৩-২৪ ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে বাংলাদেশে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।জাতীয় সংসদ নির্বাচন এবং সংগঠনের জাতীয় সম্মেলন খুবই গুরুত্বপূর্ণ।বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ শক্তিশালী ও সুসংগঠিত। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে আজ উন্নয়ন অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির অভিযাত্রা দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের আগে সহযোগী সংগঠন যাদের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গেছে, তাদেরও সম্মেলন অনুষ্ঠান করতে হবে এবং তাদেরকেও এ ব্যাপারে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অনতিবিলম্বে সম্মেলনের তারিখ নির্ধারণ করে সম্মেলন অনুষ্ঠানের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। জুলাইয়ের মধ্যে তৃণমূলের সম্মেলন শেষ করতে বলা হয়েছে। একজন সার্বক্ষণিক সাধারণ সম্পাদকের খোঁজে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।শারীরিক অসুস্থতাজনিত কারনে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মাননীয় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের এমপি বিবেচনায় নেই। আলোচনায় যাদের নাম শোনা যায় তারা হলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য কৃষিমন্ত্রী ড.আব্দুর রাজ্জাক এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গাীর কবির নানক, আব্দুর রহমান,রাজশাহীর মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম, যুগ্ম সাাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপি,তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড.হাসান মাহমুদ এমপি, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, জাতীয় সংসদের হুইপ ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি। সাধারণ সম্পাদকের বিবেচনায় এগিয়ে আছেন জনাব জাহাঙ্গীর কবির নানক,এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন ও মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম ।

সম্মেলনে প্রেসিডিয়ামে অন্তর্ভুক্ত হতে পারেন আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ এমপি,শেখ হেলাল উদ্দিন এমপি,ডা.মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, সাবের হোসেন চৌধুরী এমপি,বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, ফরিদুন্নাহার লাইলী, অধ্যাপিকা মেরিনা জাহান কবিতা এমপি, মেহের আফরোজ চুমকি এমপি, মাহবুব আরা বেগম গিনি এমপি, ডা.জাকিয়া নূর লিপি এমপি প্রমুখ।

তবে সম্মেলন কে কেন্দ্র করে মন্ত্রীসভায় রদবদলের সম্ভাবনা রয়েছে।সেক্ষেত্রে দলের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ এমপিকে তথ্য মন্ত্রণালয়, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক তথ্য মন্ত্রী ড .হাসান মাহমুদ কে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হতে পারে।মন্ত্রীসভায় যুক্ত হতে পারেন প্রেসিডিয়াম সদস্য কর্নেল(অবঃ) ফারুক খান এমপি, উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি, প্রচার সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ এমপি, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শাহে আলম এমপি, আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক এড .মৃণাল কান্তি দাস এমপি, শামীম ওসমান এমপি, ইকবাল হোসেন অপু এমপি,পংকজ দেবনাথ এমপি, নজরুল ইসলাম বাবু এমপি, ওয়াসিকা আয়শা খান এমপি, এড.সাইফুজ্জামান শিখর এমপি, মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপি, মোহাম্মদ হাছান ইমাম খান  হাজারী এমপি, বদরুদ্দোজা মোঃ ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম এমপি,সুবর্ণা মোস্তফা এমপি, আরমা দত্ত এমপি, আঞ্জুম সুলতানা এমপি, অপরাজিতা হক এমপি প্রমুখ।স্বজনপ্রিতি, অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে মন্ত্রীসভা ও দল থেকে বাদ পড়তে পারেন ডা.দীপু মনি এমপিসহ একাধিক বিতর্কিত মন্ত্রী ও কেন্দ্রিয় নেতা ।দলে ফিরতে পারেন ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ এমপি ও শহীদ তাজ উদ্দিন পুত্র সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2022 DeshPriyo News
Designed By SSD Networks Limited
error: Content is protected !!