বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৫৪ পূর্বাহ্ন

কুমিল্লা নগরে হাতি দিয়ে সড়কে চাঁদাবাজি, হাতিসহ ১ জন গ্রেফতার

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২১ অক্টোবর, ২০২২
  • ১৭৭ বার

মাসুক আলতাফ চৌধুরী, কুমিল্লা:

হাতি ও মাহুত পুলিশে আটক, চাঁদাবাজরা আইনের আওতায় আসুক।

এমন ঘটনা অহরহই চোখে পরে। সার্কাসের হাতি খাবার সংগ্রহে গিয়ে সেলামী তুলছে সড়কে হেঁটে হেঁটে। শীতের আগে এমনটাই শুরু হয়। মৌসুম ৪-৫ মাস। এবারের ঘটনাটি একটু ব্যাপক। তাই আর সেলামী বলার সুযোগ নেই, সরাসরি সংঘবদ্ধ চাঁদাবাজি। স্হানীয়রা এসপির শরণাপন্ন হওয়ায় বাঁধে বিপত্তি। পুলিশ এসে ধরে নিয়ে যায় মাহুত ও হাতিটি। এমনটি এর আগে হয় নি। তাই সংঘবদ্ধ ওই যুবকদের আইনের আওতায় আনলে ভবিষ্যতে এমন অপরাধ প্রবণতা কমবে।

কুমিল্লা মহানগরের রাজাপাড়া এলাকা। শুক্রবার ২১ অক্টোবর বিকালের ঘটনা। ৪ যুবক ওই হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি করছিল। রাজাপুর- নেউরা সড়কের মাঝামাঝি হাতি দাঁড় করিয়ে চলাচলকারী ট্রাক,মাইক্রো, কার,সিএনজি,অটোরিকশা থেকে চলছিল চাঁদা আদায়। যার কাছ থেকে যা পাওয়া যায়। স্থানীয়রা এসপিকে বিষয়টি জানায়। ইপিজেড ফাঁড়ি থেকে পুলিশ হাজির। বিপদ টের পেয়ে সটকে পড়ে ওই চার যুবক। হাতির পিঠে বসা ছিল মাহুত। তাকে আর হাতিটিকে আটক করে ফাড়িতে নিয়ে যায় পুলিশ। তখন বিকাল সাড়ে ৫ টা।

চাঁদাবাজি দন্ডনীয় অপরাধ। বন্যপ্রানী দিয়ে চাঁদাবাজিও দন্ডনীয়। ওই চার চাঁদাবাজ যুবকের পরিচয় জানা যায় নি। তারা কি আইনের আওতায় আসবে। নাকি ব্যবস্থা যা নেওয়া হয়েছে পাবলিক সেন্টিমেন্ট নিয়ন্ত্রণে ‘ আর লাগবে না’- এ পর্যন্তই থেকে যাবে।

গণমাধ্যমে সদর দক্ষিণ থানার ওসির ভাষ্য, উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। এসপির নির্দেশে ধরলে আইন এভাবেই এগোয়। পরবর্তী নির্দেশ নিশ্চয়ই আইনানুগই হবে। ওই চার যুবক যেন পাড় না পায়। মাহুতের অপরাধ সংশ্লিষ্টতাও তদন্তে বেড়িয়ে আসবে। হাতি তার মালিকের কাছে ফিরে যাবে নির্বিঘ্নে। তাহলে শখ বা দুষ্টুমির ছলে এমন অপরাধ নিরুৎসাহিত হবে।

লেখকঃ সাংবাদিক।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2022 DeshPriyo News
Designed By SSD Networks Limited
error: Content is protected !!